এককভাবে ডিজিটাল কমার্সখাতে ব্যবসা করতে পারবে বিদেশি কোম্পানি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:৫৮ পিএম, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০

দেশীয় কোম্পানির সঙ্গে যৌথ বিনিয়োগ না করেই দেশে ডিজিটাল কমার্সখাতে এককভাবে ব্যবসা করতে পারবে বিদেশি কোম্পানিগুলো। এমন বিধান রেখে ‘জাতীয় ডিজিটাল কমার্স (সংশোধিত) নীতিমালা, ২০২০’ এর খসড়া অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

সোমবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই অনুমোদন দেয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন। বৈঠক শেষে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম প্রেস ব্রিফিংয়ে এ অনুমোদনের কথা জানান।

২০১৯ সালের ৩১ জানুয়ারি থেকে ডিজিটাল কমার্স নীতিমালা কার্যকর করা হয়েছে জানিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘আগের নীতিমালায় ছিল- ডিজিটাল কমার্সখাতে বৈদেশিক বিনিয়োগের ক্ষেত্রে বিদ্যমান বিধিবিধান প্রতিপালন করতে হবে; তবে বিদেশি ডিজিটাল কমার্স ইন্ডাস্ট্রি দেশীয় কোনো ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গ যৌথ বিনিয়োগ ছাড়া এককভাবে ব্যবসা পরিচালনা করতে পারবে না এবং দেশীয় ডিজিটাল কমার্স ইন্ডাস্ট্রির স্বার্থসমূহকে প্রাধান্য দেয়া হবে।’

তিনি বলেন, এটাকে পরিবর্তন করে ‘ডিজিটাল কমার্সখাতে বৈদেশিক বিনিয়োগের ক্ষেত্রে বিদ্যমান বিধিবিধান প্রতিপালন করতে’ শুধু এই অংশটুকু রাখা হয়েছে। অর্থাৎ, বিদেশি ডিজিটাল কমার্স ইন্ডাস্ট্রি দেশীয় কোনো ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গে যৌথ বিনিয়োগ ছাড়াই এককভাবে ব্যবসা পরিচালনা করতে পারবে না বলে আগের নীতিমালায় যে বাধ্যবাধকতা রাখা হয়েছিল তা তুলে দিল সরকার।

ডিজিটাল কমার্সখাতে বিদেশি কোম্পানি ৫১:৪৯ ইকুইটিভিত্তিক মালিকানা ব্যবস্থায় নিয়োগ করবে বলে নীতিমালায় ছিল জানিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘প্রস্তাব ছিল ডিজিটাল কমার্সখাতে শতভাগ বিদেশি বিনিয়োগে কোম্পানি গঠনের সুযোগ দিতে হবে, এটা মন্ত্রিসভা অনুমোদন দেয়নি। মন্ত্রিসভা বলেছে, যেটা আছে সেটা থাকলেই চলবে, তারা আমাদের এখানে বিনিয়োগ করবে আমাদের রুলস, রেগুলেশন যা আছে সেটা মেনেই করতে হবে।’

তিনি আরও জানান, ডিজিটাল কমার্স নীতিমালাটি সংশোধনের ক্ষমতা বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের হাতে রাখা হয়েছিল। সেটাকে পরিবর্তন করে মন্ত্রিসভা বলছে, নীতিমালাটি সংশোধন করতে হলে তা মন্ত্রিসভায় আনতে হবে।

আরএমএম/জেএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]