সন্তানকে নিজেই পুলিশে দিলেন মা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:৫৬ পিএম, ২৫ অক্টোবর ২০২০

মাকড়সা নিজের সন্তানদের খাদ্যের চাহিদা মেটাতে নিজের শরীর উৎসর্গ করে দেয় সন্তানদের কাছে। সন্তানের প্রতি মায়ের এমন ভালোবাসার নজির আছে অসংখ্য। কিন্তু দেশ ও দশের কল্যাণে বিগড়ে যাওয়া সন্তানকে উৎসর্গ করার নজির মেলে কালেভদ্রে। এমনই এক ঘটনা ঘটেছে চট্টগ্রামের কোতোয়ালি থানা এলাকায়। যেখানে মায়ের বিবেকের কাছে হার মেনে গেছে তার আবেগ।

ঘটনার শুরু শনিবার (২৪ অক্টোবর) সন্ধ্যার পর। জনৈক মোহাম্মদ আশফাক হোসেন তার ব্যক্তিগত মোটরসাইকেলটি রিয়াজউদ্দিন বাজার তামাকুমুন্ডি লেইনের বিপরীত পাশে রেখে মোবাইল মেরামত করতে যান। এ সময় তিনি মোটরসাইকেলটি তালাও মেরে যান। কিন্তু কিছুক্ষণ পর এসে দেখেন তার মোটরসাইকেলটি সেখানে নেই।

ব্যতিব্যস্ত হয়ে অনেক খোঁজাখুঁজির পর জানতে পারেন এক যুবক তার নিজের মোটরসাইকেল বলে সেটা রিকশায় উঠিয়ে নিয়ে গেছেন। হতভম্ব হয়ে আশফাক হোসেন তাৎক্ষণিকভাবে ছুটে যান টিম কোতোয়ালির টহল দলের কাছে।

আশফাক হোসেনের কাছে পুরো ঘটনা শুনে টহল টিমের দায়িত্বে থাকা এসআই মো. মনজুরুল আলম ভূঞাঁ কালবিলম্ব না করে অভিযান শুরু করেন।

অভিযানের এক পর্যায়ে পুলিশকে একজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান, কিছুক্ষণ আগে এক যুবককে একটি মোটরসাইকেল রিকশাযোগে নগরের আসকারদিঘীর পাড় এলাকায় নিয়ে যেতে দেখেছেন তিনি। এ সংবাদে অভিযানে নতুন মাত্রা আসে। টহল টিমটি ছুটে যায় সেখানে। সামান্য খোঁজাখুঁজি করতেই পাওয়া যায় চুরি যাওয়া মোটরসাইকেলটি। এ সময় ঘটে অভূতপূর্ব এক ঘটনা।

কোতোয়ালী থানার ওসি মোহাম্মদ মহসিন জাগো নিউজকে বলেন, আসকার দিঘীর দক্ষিণ পাড়ের শতদল ক্লাবের পাশে একটি গলিতে মো. তুহিন ভূঁইয়া (২২) নামের এক যুবক থেকে মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়। সন্তানের এমন অপরাধের কথা জানতে পেরে মা পারভিন আক্তার নিজেই সন্তানকে পুলিশের হাতে তুলে দিয়ে এক বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন।

আবু আজাদ/জেএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]