করোনায় রেকর্ড ২৩১ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৩৩২১

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৫:৩৫ পিএম, ১৯ জুলাই ২০২১
ফাইল ছবি

দেশে করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যুর মিছিল ক্রমেই দীর্ঘ হচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় গত ২৪ ঘণ্টায় এ ভাইরাসে সারা দেশে আরও ২৩১ জনের মৃত্যু হয়েছে। যা এখন পর্যন্ত একদিনে দেশে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড। এর আগে ১১ জুলাই সর্বোচ্চ ২৩০ জন মারা গিয়েছিলেন।

এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন আরও ১৩ হাজার ৩২১ জন। এ নিয়ে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১ লাখ ১৭ হাজার ৩১০ জনে। আর এখন পর্যন্ত করোনায় মোট মৃত্যু হলো ১৮ হাজার ১২৫ জনে।

সোমবার (১৯ জুলাই) স্বাস্থ্য অধিদফতরের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে থেকে জানা যায়, করোনায় নতুন মৃত ২৩১ জনের মধ্যে পুরুষ ১৩৬ ও নারী ৯৫ জন। এদের মধ্যে সরকারি হাসপাতালে ১৬৭ জন, বেসরকারি হাসপাতালে ৪৬ জন এবং বাড়িতে ১৮ জন মারা যান।

বয়সের হিসাবে মৃতদের মধ্যে দশোর্ধ একজন, বিশোর্ধ ছয়জন, ত্রিশোর্ধ্ব ৯ জন, চল্লিশোর্ধ্ব ৩৩ জন, পঞ্চাশোর্ধ্ব ৪৩ জন, ষাটোর্ধ ৭৪ জন, সত্তোরোর্ধ্ব ৪৪, আশির্ধ্ব ১৯ এবং নব্বই বছরের বেশি বয়সী চারজন রয়েছেন।

jagonews24

করোনায় মৃত ২৩১ জনের মধ্যে- ঢাকা বিভাগে ৭৩ জন, চট্টগ্রাম ৪৩ জন, রাজশাহী ১৬ জন, খুলনা ৫৭ জন, বরিশাল ছয়জন, সিলেট বিভাগে আটজন, রংপুর বিভাগে ১৭ জন এবং ময়মনসিংহ বিভাগে ১১ জনের মৃত্যু হয়।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় সরকারি-বেসরকারি ৬৩৮টি ল্যাবরেটরিতে ৪৬ হাজার ৪৫১টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। আর নমুনা পরীক্ষা করা হয় ৪৫ হাজার ১২টি। এ নিয়ে মোট নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা হলো ৭৩ লাখ ৩৯৯টি।

গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ২৯ দশমিক ৫৯ শতাংশ। গত বছরের ৮ মার্চ প্রথম রোগী শনাক্ত হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত শনাক্তের মোট হার ১৫ দশমিক শূন্য ৩০ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৯ হাজার ৩৩৫ জন। এ নিয়ে দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে উঠা রোগীর সংখ্যা বেড়ে হলো ৯ লাখ ৪১ হাজার ৩৪৩ জনে। ২৪ ঘণ্টায় সুস্থতার হার ৮৪ দশমিক ২৫ শতাংশ।

বাংলাদেশে করোনা প্রথম শনাক্ত হয় গত বছরের ৮ মার্চ। এর ১০ দিন পর ভাইরাসটিতে একজনের মৃত্যুর তথ্য জানায় স্বাস্থ্য অধিদফতর।

এমইউ/জেডএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]