ঠোঁট-তালুকাটা রোগীদের বিনামূল্যে সেবা দিলো জেসিআই

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:১৩ পিএম, ০২ জুলাই ২০২২
জেসিআইয়ের বিশেষ অনুষ্ঠান

ঠোঁট ও তালুকাটা দরিদ্র রোগীদের বিনামূল্যে চিকিৎসা দিয়েছে স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা জুনিয়র চেম্বার ইন্টারন্যাশনাল (জেসিআই)। শনিবার (২ জুলাই) রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের বেসরকারি কেয়ার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এ চিকিৎসা দেওয়া হয়।

সফল অস্ত্রোপচার শেষে এদিন বিকেলে কেয়ার মেডিকেলের সম্মেলনকক্ষে বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে সংস্থাটি। সেখানে জেসিআই কর্তৃপক্ষ তাদের কার্যক্রম তুল ধরে।

অনুষ্ঠানে সংস্থার সহ-সভাপতি সামিয়া রহমান বলেন, জেসিআই ঢাকা উয়িং একটি প্ল্যাটফর্ম তৈরির জন্য জেসিআই স্মাইল ফরএভার প্রকল্প হাতে নিয়েছে। এ প্রকল্পের উদ্দেশ্য-লক্ষ্য হলো- টেকসই ও স্থানীয় মডেলের সাহায্যে বিনামূল্যে ক্লেফ্ট কেয়ার (ঠোঁট ও তালুকাটা রোগীদের চিকিৎসা সেবাদান) সার্জারিসহ অন্য প্রয়োজনীয় সেবা দেওয়া।

‘এরই অংশ হিসেবে আজ তিনজন দরিদ্র রোগীকে বিনামূল্যে অস্ত্রোপাচার করা হয়েছে। কেয়ার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের অধ্যাপক ডা. বিজয় কৃষ্ণ দাসের নেতৃত্বে পরিচালতি একদল চিকিৎসক এ সফল অস্ত্রোপচার করেন।’

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, বাংলাদেশে প্রতি বছর চার হাজারেরও বেশি ছিন্নমূল শিশু জন্ম নেয়। তাদের মধ্যে অনেকেই ঠোঁট ও তালুকাটা জনিত বিকলাঙ্গ। দেশ-বিদেশের বেশ কিছু ক্লেফট দাতব্য সংস্থা এ ধরনের শিশুদের জন্য কাজ করছে, সরকারি স্বাস্থ্যসেবাও রয়েছে। এসব দাতব্য সংস্থাগুলো সুবিধাবঞ্চিত দরিদ্র শিশুদের বিনামূল্যে সেবা দিলেও তা যথেষ্ট নয়।

জেসিআই ঢাকা উইংয়ের আঞ্চলিক সভাপতি এসএম মুক্তাদিরুল হক বলেন, জেসিআই ১৮-৪০ বছর বয়সী তরুণ সক্রিয় নাগরিকদের একটি অলাভজনক আন্তর্জাতিক সংস্থা। এটি সমাজের সব স্তর থেকে সক্রিয় নাগরিকদের নিয়ে স্বেচ্ছাসেবামূলক কাজ করছে। বর্তমানে বাংলাদেশে সংস্থাটির ২৮টি আঞ্চলিক চ্যাপ্টার (ক্লাব) কাজ করছে।

স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. পারভীন ফাতেমা বলেন, ঠোঁট বা তালুকাটা রোগীদের চিকিৎসা দিয়ে সুস্থ্য করার পর তাদের হাসি আমাদের কষ্ট ভুলিয়ে দেয়। তবে এ ধরনের রোগীদের পাশাপাশি অন্য অঙ্গ বিকল মানুষের সেবায়ও এগিয়ে আসতে হবে। বিশেষ করে, দরিদ্র পরিবারের কিশোরী-নারীদের পুষ্টি ও গর্ভবতী মায়েদের সেবায় জোর দিতে হবে।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন- জেসিআইয়ের জাতীয় সভাপতি, বাংলাদেশ নিয়াজ মোর্শেদ এলিট ও সেভ দ্যা চিলড্রেনের কর্মকর্তারা। অনুষ্ঠানের সঞ্চালনায় ছিলেন- জেসিআই ঢাকা উয়িংয়ের প্রজেক্ট লিডার অ্যান্ড ডিরেক্টর সাদিয়া ইয়াসমিন মুন। এ সময় আমন্ত্রিত অতিথিদের ক্রেস্ট দিয়ে সম্মাননা জানানো হয়।

এএএম/এসএএইচ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]