স্বার্থ জলাঞ্জলি দিয়ে সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক হয় না : ফখরুল

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:৫২ পিএম, ২৬ মে ২০১৮

ভারতের সঙ্গে সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে নিজেদের স্বার্থ জলাঞ্জলি দিলে জনগণ মেনে নেবে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, দেশের স্বার্থ জলাঞ্জলি দিয়ে সুসম্পর্ক হয় না।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রতিবেশী রাষ্ট্র ভারতের পশ্চিমবঙ্গে যে বক্তব্য দিয়েছেন তার প্রতিক্রিয়ায় বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শান্তিনিকেতনে গেছেন। আমাদের অনেকেরই প্রিয় জায়গা সেটি। সেখানে বাংলাদেশ ভবন উদ্বোধন করেছেন। ভালো কথা। কিন্তু আমাদের অধিকারের কথা বলা যাবে না কেন?’

‘পত্রিকায় দেখলাম প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, সমস্যার কথা বলে আজকের এই সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশ নষ্ট করতে চান না। কেন এটা হবে? নিজেদের অধিকারের কথা বললে সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক কেন নষ্ট হবে? এ সম্পর্কের জন্য কি আমরা পানি সমস্যা ভুলে যাব?’

বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের অন্যতম শরিক ন্যাশনাল পিপলস পার্টি এনপিপি শনিবার রাজধানীর মতিঝিলে হোটেল পূর্বাণীর ‘গুলফিশান’ মিলনায়তনে ইফতার মাহফিলে এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘নিজেদের অধিকারের কথা বললে সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক কেন নষ্ট হবে? এ সম্পর্কের জন্য কি আমরা পানি সমস্যা ভুলে যাবো? ১০ বছর ধরে তিস্তা পানির সুরাহা হওয়ার কথা শুনছি। পানির অভাবে অনেকের জীবন জীবিকা বন্ধ হয়ে যায়। কিন্তু সুরাহা হয়নি। আমরা অত্যন্ত সুসম্পর্ক চাই। কিন্তু পারস্পরিক স্বার্থ জলাঞ্জলি দিয়ে নয়। নিজেদের অধিকার জলাঞ্জলি দিয়ে সুসম্পর্ক জনগণ মেনে নিবে না।।’

এনপিপি চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট ড. ফরিদুজ্জামান ফরহাদের ইফতার মাহফিলে স্বাগত বক্তব্য দেন।

২০ দলীয় জোটের শরিক জাতীয় পার্টি (কাজী জাফর) মোস্তফা জামাল হায়দার, আহসান হাবিব লিংকন, কল্যাণ পার্টির সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম, এমএম আমিনুর রহমান, জামায়াতে ইসলামীর মিয়া গোলাম পারোয়ার, আবদুল হালিম, ইসলামী ঐক্যজোটের মাওলানা আবদুর রকীব, খেলাফত মজলিশের মাওলানা মজিবুর রহমান, বিজেপির আবদুল মতিন সাউদ, এলডিপির সাহাদাত হোসেন সেলিম, জাগপার আসাদুর রহমান খান, লেবার পার্টির দুই অংশের মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, হামদুল্লাহ আল মেহেদি, মাহমুদ খান, ন্যাপের গোলাম মোস্তফা ভুঁইয়া, মো. কামাল ভূঁইয়া, ন্যাপ-ভাসানীর আজহারুল ইসলাম, মুসলিম লীগের এএইচএম কামরুজ্জামান খান, শেখ জুলফিকার বুলবুল চৌধুরী, এনডিপি‘র মনজুর হোসেন ঈসা, পিপলস লীগের গরীবে নেওয়াজ, সৈয়দ মাহবুব হোসেন, সাম্যবাদী দলের সাঈদ আহমেদ, ডিএলের মিজানুর রহমান, জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের মাওলানা মহিউদ্দিন ইকরাম প্রমুখ নেতৃবৃন্দকে নিয়ে বিএনপি মহাসচিব ইফতার করেন।

ইফতার মাহফিলে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ভাইস চেয়ারম্যান শাহজাহান ওমর, বরকত উল্লাহ বুলু, নিতাই রায় চৌধুরী, কেন্দ্রীয় নেতা তৈমুর আলম খন্দকার, সৈয়দ মেহেদি আহমেদ রুমি, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, শামা ওবায়েদ, খালেদা ইয়াসমীন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক মাহবুবউল্লাহ, এনপিপির মহাসচিব মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তফা, প্রেসিডিয়াম সদস্য আহম জহির হোসেন হাকিম, এম অহিদুর রহমান, মো. নজরুল ইসলাম, বেলাল আহমেদ, মাওলানা হারুন অর রশীদ, সালমা রহমান প্রমুখ।

কেএইচ/জেএইচ/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :