শান্তিপূর্ণ সহাবস্থানের রাজনীতি প্রবর্তন করেছেন এরশাদ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:২২ পিএম, ০২ জুলাই ২০১৯

জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জি এম কাদের বলেছেন, পল্লীবন্ধু এরশাদ এদেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির রাজনীতি প্রবর্তন করে সব ধর্ম-বর্ণের মধ্যে শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান নিশ্চিত করেছেন।

মঙ্গলবার রাজধানীর বনানী চেয়ারম্যানের কার্যালয় মিলনায়তনে ঢাকা টু গুয়াহাটি সরাসরি বিমান চলাচল শুরু উপলক্ষে বাংলাদেশে সফররত ভারতের আসাম, পশ্চিমবঙ্গ ও উত্তর প্রদেশের বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক কর্মী, সাংবাদিক, অর্থনীতি ও ব্যবসায়ী প্রতিনিধি দলের সদস্যদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময়কালে তিনি এ কথা বলেন।

জি এম কাদের বলেন, তিনি সংখ্যালঘুদের প্রতি সহানুভূতির দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। তার নীতি ও আদর্শ আমাদের কাছে ঐতিহ্য হয়ে থাকবে।

এ সময় সফরকারী সদস্যরা জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের রোগমুক্তি এবং সুস্থতা কামনায় প্রার্থনা করেন।

বাংলাদেশে সফররত ভারতীয় প্রতিনিধি দলকে শুভেচ্ছা জানিয়ে তিনি বলেন, ভারতের সঙ্গে আমাদের সুসম্পর্ক অত্যন্ত সুনিবিড়। দুই দেশের মধ্যে বিরাজমান সামাজিক, সাংস্কৃতিক, অর্থনৈতিক সম্পর্ক আগামী দিনে আরও শক্তিশালী হবে বলে আমি বিশ্বাস করি।

এ সময় জাতীয় পার্টির মহাসচিব ও সংসদের বিরোধীদলীয় উপনেতা মসিউর রহমান রাঙ্গা বলেন, বাংলাদেশ ও ভারতের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক ঐতিহ্যগত। আমাদের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করতে জঙ্গিবাদ কিছুটা সমস্যা সৃষ্টি করেছিল। সবার সম্মিলিত প্রতিরোধে জঙ্গিবাদের অপচেষ্টা নস্যাৎ হয়ে গেছে।

তিনি বলেন, পল্লীবন্ধু এরশাদ রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম ঘোষণা করলেও হিন্দু ও বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের জন্য কল্যাণ ট্রাস্ট স্থাপন করে সব ধর্মের জন্য সমান সুযোগ নিশ্চিত করেছেন।

সভায় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এমপি, সুনীল শুভ রায়, মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তফা, রেজাউল ইসলাম ভূইয়া, আলমগীর সিকদার লোটন, চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা সেলিমুর উদ্দিন, জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নেতা এমএ রাজ্জাক খান রাজ্জাক ও সুজন দে।

ভারতের ১৩ সদস্যবিশিষ্ট প্রতিনিধি দলের মধ্যে ছিলেন আসামের ব্যতিক্রম-মাসডো’র চেয়ারম্যান ড. সৌমেন ভারদীয়া, দৈনিক আজকালের চিফ রিপোর্টার তরুণ চক্রবর্তী, আসামের এমজেএল গ্রুপের চেয়ারম্যান জেহেরুল ইসলাম, উত্তর প্রদেশের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী বিজয় নাইডু, ফ্রেন্ডস অব বাংলাদেশ আসামের প্রেসিডেন্ট বিভুতি দত্ত, সংগীত শিল্পী মনোজ কুমার শীল, অর্থনীতিবিদ মুকুল চন্দ্র গোগই, আসামের বিশিষ্ট শিল্পপতি সুবিনয় চক্রবর্তী, সমাজকর্মী মৃদুল সাহা।

এইউএ/জেএইচ/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]