নাসায় কাজের ইচ্ছা পূরণ হলো না বাঁধনের

প্রবাস ডেস্ক প্রবাস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:০৬ পিএম, ২৯ নভেম্বর ২০১৭

যুক্তরাষ্ট্রে গুলিতে নিহত বাংলাদেশি মেধাবী ছাত্র এম হাসান রহমান বাঁধনের ইচ্ছা ছিল আন্তর্জাতিক মহাকাশ সংস্থায় (নাসা) গবেষণামূলক কাজে অংশ নেয়া। এজন্য তার প্রস্তুতি ছিল যথেষ্ট। কিন্তু দুর্বৃত্তের গুলিতে নিহত হয়ে তার সে ইচ্ছে অপূর্ণই রয়ে গেল।

সম্প্রতি ক্যানসাসের উচিটা শহরে পিৎজা ডেলিভারি দিতে গিয়ে দুর্বৃত্তের গুলিতে নিহত হন এ মেধাবী ছাত্র। সদা হাস্যোজ্জ্বল বাঁধনের মৃত্যুরহস্য উদঘাটনে পুলিশ কাজ করে যাচ্ছে বলে জানা গেছে। আইনি প্রক্রিয়া শেষে বাঁধনের মরদেহ বাংলাদেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করেছে উচিটার বাঙালি কমিউনিটি।

এদিকে সোমবার রাতে ক্যানসাসের উচিটা শহরে একমাত্র বাঙালি খাবার রেস্টুরেন্ট দেশি কারীতে শোক সভার আয়োজন করা হয়। মিড-কন্টিনেন্ট বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন ক্যানসাস, উচিটা স্টেট ইউনিভার্সিটি স্টুডেন্ট অর্গানাইজেশনের নেতারা, ব্যবসায়ী, শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

বাঁধনের বন্ধু নঈম জানান, বাঁধন ঢাকার উত্তরা মডেল হাইস্কুল থেকে এসএসসি পাশ করেন। বিজ্ঞান কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ শেষে স্কলারশিপ নিয়ে উচিটা স্টেট ইউনিভার্সিটিতে অ্যারোস্পেস ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ভর্তি হন ২০১০ সালে। এরপর অহর্নিশ পড়াশোনা চালিয়ে যাচ্ছিলেন।

Nasa2

যুক্তরাষ্ট্রে পড়ালেখা চালিয়ে যেতে একজন শিক্ষার্থীকে অনেক কাঠখড় পোড়াতে হয়। ছোট শহর হলে পরিশ্রম অনেক বেড়ে যায়।

তিনি জানান, বাটলার কমিউনিটি কলেজ থেকে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে অ্যাসোসিয়েট শেষ করে আগামী সেশনে ক্যানসাস ইউনিভার্সিটিতে ভর্তির চূড়ান্ত প্রক্রিয়া শেষ করেছিলেন বাবা-মায়ের একমাত্র সন্তান। আগামী ডিসেম্বরে তার ভর্তি হওয়ার কথা ছিল। গত মাসে তিনি ইউএস বিমানবাহিনীতে পরীক্ষা শেষ করেন। সর্বোচ্চ নম্বরও পেয়েছিলেন। সে কারণে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ তার পছন্দসই যে কোনো শাখা বাছাই করার জন্য তাকে সময় দেন। তার ইচ্ছা ছিল-এ পথ ধরে মহাকাশ সংস্থা (নাসা) পর্যন্ত যাওয়া।

উচিটা শহরে এখন যেন বোবা কান্না! বাঙালি কমিউনিটিতে এম হাসান রহমান ছিল অনন্য এক প্রতিভা। যে কোনো অনুষ্ঠান তিনি জমিয়ে তুলতেন। তার সুরেলা কণ্ঠে মরমি, বাউল, দেশাত্মবোধক গান বেশ মাতাতো। যেন সবাইকে চোখের জলে ভাসিয়ে দিয়ে চলে গেল না-ফেরার দেশে।

বাবা মজিবুর রহমান আবেদ হাউজিং লিমিটেডে প্রকৌশলী এবং মা হোসনে আরা বেগম বিডিবিএল ব্যাংকের প্রিন্সিপাল কর্মকর্তা। তাদের পৈতৃক বাড়ি গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার রাজাবাড়িতে।

এমআরএম/জেআইএম

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - jagofeature@gmail.com

আপনার মতামত লিখুন :