সৌদিতে সন্ত্রাসবিরোধী সম্মেলনে বাংলাদেশ

প্রবাস ডেস্ক প্রবাস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৪৪ পিএম, ২৯ নভেম্বর ২০১৭

সৌদি আরবের রিয়াদে ৪১টি মুসলিম দেশের প্রতিরক্ষামন্ত্রীদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবিরোধী সম্মেলন। রোববার স্থানীয় সময় সকালে রিয়াদের একটি হোটেলে সৌদি আরবের ক্রাউন প্রিন্স ও প্রতিরক্ষামন্ত্রী মোহাম্মদ বিন সালমান এ সম্মেলনের উদ্বোধন করেন।

এ সম্মেলনের মূল থিম হচ্ছে সন্ত্রাসবিরোধী সহযোগিতা। ইসলামিক মিলিটারি কাউন্টার টেররিজম কোয়ালিশন (আইএমসিটিসি) এ সম্মেলনের আয়োজন করে। মোহাম্মদ বিন সালমান বিভিন্ন দেশ থেকে সন্ত্রাসবিরোধী সম্মেলনে যোগ দিতে আসা প্রতিরক্ষামন্ত্রীদের স্বাগত জানান।

বাংলাদেশ থেকে প্রধানমন্ত্রীর প্রতিরক্ষাবিষয়ক উপদেষ্টা মেজর জেনারেল (অব.) তারিক আহমেদ সিদ্দিকের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল সম্মেলনে যোগদান করেছে। এছাড়া বাংলাদেশ দূতাবাসের চার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্স ড. এমডি নজরুল ইসলাম ও ডিফেন্স অ্যাটাশে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. শাহআলম চৌধুরীও সম্মেলনে যোগ দেন।

মূলত মতাদর্শ, যোগাযোগ, জঙ্গি-সন্ত্রাসী অর্থায়ন এবং সামরিক এ চারটি বিষয়ে জোটের সদস্য দেশগুলো সন্ত্রাসবিরোধী প্রচেষ্টাকে একত্রিত ও সমন্বয় করার জন্য কাজ করবে। সন্ত্রাসবাদের হুমকি যা মুসলিম ও অমুসলিম দেশগুলোকে ক্ষতিগ্রস্ত করছে এবং ইসলামের ভাবমূর্তিকে বিকৃত করছে তা নিয়ে কাজ করবে জোটের সংগঠন-আইএমসিটিসি।

সম্মেলনে বাংলাদেশের প্রতিনিধি দলের প্রধান তারিক আহমেদ সিদ্দিক বলেন, সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের জিরো টলারেন্স নীতি রয়েছে এবং সন্ত্রাসীদের বাংলাদেশ তার ভূখণ্ড ব্যবহার করার অনুমতি দেয় না। তিনি তার বক্তব্যে সম্প্রতি বাংলাদেশে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের অনুপ্রবেশের বিষয়টিও উত্থাপন করেন।

বৈঠকে আইএমসিটিসির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব লেফটেন্যান্ট জেনারেল আবদুল্লা আল-সালেহ জোটের কৌশল, শাসন, কার্যক্রম ও ভবিষ্যতের পরিকল্পনাগুলো তুলে ধরেন।

এমআরএম/এমএস

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - jagofeature@gmail.com

আপনার মতামত লিখুন :