একুশে ফেব্রুয়ারি বাঙালির মননের বাতিঘর

জমির হোসেন
জমির হোসেন , ইতালি প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ০৪:৫৪ পিএম, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও অমর একুশে উপলক্ষে ডেনমার্কে বাংলাদেশ দূতাবাসে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। দূতাবাসের হেড অব চ্যান্সেরি ও প্রথম সচিব শাকিল শাহরিয়ার’র উপস্থাপনায় রাষ্ট্রদূত এম মুহিত সভাপতিত্ব করেন।

সভায় মাতৃভূমি ও মাতৃভাষার জন্য আত্মত্যাগকারী সব শহীদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করা হয়। পরবর্তীতে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীর বাণী পড়ে শোনানো হয়।

বক্তারা বলেন, একুশে ফেব্রুয়ারি বাঙালি জাতিসত্তার অনুপ্রেরণার দিন। এ দিনটি ঐতিহ্যের পরিচয়কে দৃঢ় করেছে। বাংলা ভাষা বিশ্বের দরবারে সম্মানের আসন লাভ করেছে। এ ভাষার কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর অমর কাব্যগ্রন্থ ‘গীতাঞ্জলি’ রচনা করে নোবেল পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন ১৯১৩ সালে।

বক্তারা আরও বলেন, এ ভাষার অসাধারণ প্রজ্ঞাবান মানুষ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭৪ সালে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে বাংলা ভাষায় বক্তব্য দিয়ে বাংলাকে নিয়ে গেছেন বিশ্ব পরিমণ্ডলে। একুশে ফেব্রুয়ারি উদযাপিত হয় সারা পৃথিবীতে একুশে আমাদের মননের বাতিঘর হিসেবে।

একুশ এখন সারাবিশ্বের ভাষা ও সংগ্রাম ও মর্যাদার প্রতীক। সারাবিশ্বের বিভিন্ন দেশে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে আছে আমাদের অহংকার ‘শহীদ মিনার’।

উপস্থিত ছিলেন প্রবীণ প্রবাসী ডেনমার্ক আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা বাবু সুভাষ ঘোষ, সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ডেনমার্ক আওয়ামী সাধারণ সম্পাদক ড. বিদ্যুৎ বড়ুয়া, আওয়ামী লীগ নেতা জাহিদ চৌধুরী বাবু, মাহবুব রহমান, নঈম বাবু, ইউসুফ আহমেদ, বোরহান উদ্দিন, খোকন মজুমদার প্রমুখ।

এমআরএম/জেআইএম

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - jagofeature@gmail.com