অভিবাসীবান্ধব ইশতেহার : ইআরসির পক্ষে ভোট চাইছেন বাংলাদেশিরা

মিরন নাজমুল
মিরন নাজমুল মিরন নাজমুল , স্পেন প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ০৭:৫৬ পিএম, ২৬ এপ্রিল ২০১৯

২৮ এপ্রিল অনুষ্ঠিতব্য স্পেনের জাতীয় নির্বাচনে অভিবাসনবান্ধব ১০ দফার নির্বাচনী ইশতেহারের ঘোষণা দিয়েছে কাতালোনিয়ার বামপন্থী দল এসকেররা রেপুবলিকানা দে কাতালোনিয়া (ইআরসি)। এ নির্বাচনী ইশতেহার প্রচারের মাধ্যমে দলটির পক্ষে ভোট চাইছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

ইশতেহারে উল্লেখিত ১০ দফার মধ্যে আছে- পরিবারের সঙ্গে বসবাসের অধিকার, বৈধ বসবাসের সর্বোচ্চ ৫ বছরের মধ্যে স্পেনের নাগরিকত্ব প্রদান, বৈধ বাসস্থানের অনুমতি প্রদান সহজলভ্য ও অপ্রত্যাশিত অনিময় এড়িয়ে চলা, আইনি ও নিরাপদ এসাইলামের অধিকার প্রতিষ্ঠা করা, নতুনদের স্বাগতম জানানোর পদ্ধতি গতিশীল করা এবং বিকেন্দ্রীকরণ করা, অভিবাসীদের ভোটাধিকার নিশ্চিত করা, বর্ণবাদ এবং বিদেশি বিদ্বেষ প্রতিরোধের জন্য যে সকল সংগঠন বর্ণবাদ, বিদেশি বিদ্বেষ এবং মানবাধিকারবিরোধী প্রচারণা চালায় তাদের অবৈধ ঘোষণা করা, সমতা-বৈচিত্র্য ও মিথস্ক্রিয়ার মাধ্যমে সকল রাজনৈতিক মতাদর্শকে আন্তঃসাংস্কৃতির দৃষ্টিকোণ থেকে বিচার করা, সম কর্মসংস্থান তৈরিসহ কর্মক্ষেত্রে বিনা বৈষম্য তৈরি নিশ্চিত করা, অভিবাসীদের জন্য সংগ্রহ, অন্তর্ভুক্তি এবং শিক্ষাগত সহায়তা তহবিল নিশ্চিত করা।

Italy-Election-1

কাতালোনিয়ার এই রাজনৈতিক দল ইআরসি-এর বাংলাদেশবিষয়ক সমন্বয়ক হিসেবে কাজ করেন সালেহ আহমেদ। এবারের জাতীয় নির্বাচনে প্রবাসী বাংলাদেশিদের ভূমিকা নিয়ে তাকে প্রশ্ন করা হলে তিনি জানান, ‘সাম্প্রতিক অতীতের যেকোনো নির্বাচনের সঙ্গে তুলনা করলে এবারের নির্বাচনী প্রচারণায় কাতালোনিয়ায় বসবাসকারী আমরা প্রবাসী বাংলাদেশিরা প্রচারণায় বেশি অংশগ্রহণ করছি। এ ক্ষেত্রে আমাদের দল ইআরসি অভিবাসনবান্ধব ১০ দফা নির্বাচনী ইশতেহারকে সামনে রেখে প্রচারণা চালাচ্ছি। আমাদের দল অভিবাসীদের দাবি নিয়ে বেশি কাজ করায় যৌক্তিক কারণে আমাদের পক্ষে প্রচারণাটা বেশি পাচ্ছি তাদের কাছ থেকে। এছাড়া জাতীয় নির্বাচনে প্রবাসী বাংলাদেশিদের পক্ষ থেকে সংসদ সদস্য প্রার্থী দেবার আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

নির্বাচনের সময় যতই ঘনিয়ে আসছে দলের স্থানীয় নেতাদের সঙ্গে একাত্মতা ঘোষণা করেন প্রবাসী বাংলাদেশিরাও। বিভিন্ন রাজনৈতিক দল প্রচারপত্র, প্ল্যাকার্ড, ফেস্টুন নিয়ে নির্বাচনী প্রচারণা নামতে দেখা যাচ্ছে। বাংলাদেশি কমিউনিটির অনেক বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ নির্বাচনী সভায় স্থানীয় বড় বড় রাজনৈতিক নেতাদের সঙ্গে সমান হয়ে স্টেজে ভোট প্রচারণা ও দাবি দাওয়া নিয়ে বক্তব্য দিচ্ছেন। ইআরসি অভিবাসীদের পক্ষে স্লোগান দিচ্ছে- ‘ভোটা পারা নো ডেসক্রিমিনাসিয়ন’ অর্থাৎ বৈষম্যনীতির বিরুদ্ধে ভোট দিন। এই স্লোগানে প্রবাসীদের নিয়ে বৈষম্যনীতির বিরুদ্ধে ভোট দেয়ার যে আহ্বান করা হচ্ছে সেটা প্রবাসীরা ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন এবং দলটির পক্ষে প্রচারণায় তাদের অংশগ্রহণে আরও অনুপ্রাণিত করছে বলে বিশ্লেষকরা মনে করছেন।

জেএইচ/পিআর

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]

আপনার মতামত লিখুন :