যুক্তরাষ্ট্র আ.লীগের সভায় উত্তেজনা, সিদ্ধান্ত ছাড়াই মুলতবি

প্রবাস ডেস্ক প্রবাস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:২৪ পিএম, ০৪ মে ২০১৯

যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের উদ্যোগে কার্যকরী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সম্প্রতি জ্যাকসন হাইটস্থ নিউইয়র্কের পালকী সেন্টারে দেশটির আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমানের সভাপতিত্বে এ সভা হয়।

সভার শুরুতেই সিকিউরিটি দিয়ে আইডি ও নামের তালিকা দেখে প্রবেশে বাধা দেয়ার অভিযোগ আনা হয়। এ ছাড়া সেখানে ধাক্কাধাক্কি, হুমকি-পাল্টা হুমকির অভিযোগ আনেন নেতাকর্মীরা।

আলোচনার শুরুতেই সভার এজেন্ডা ও সভা ডাকার বৈধতা নিয়ে গঠনতান্ত্রিক ব্যাখ্যা দাবি করে সভাপতির দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়। ইতোপূর্বে দুটি কার্যকরী সভা মুলতবি ঘোষণা করা হয়েছে। কোনো ধরনের সিদ্ধান্ত ছাড়া এটিও কেন মুলতবি ঘোষণা করা হবে? কেন সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠনের এজেন্ডা নেই তা জানতে চাওয়া হয়।

বর্তমান কমিটির মেয়াদ শেষ হলেও কোন ক্ষমতাবলে শূন্যপদ পূরণ হবে না জানতে চান সদস্যরা। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনার নির্দেশনা থাকা সত্ত্বেও ক্ষমতা আঁকড়ে ধরার এই হীন প্রচেষ্টা বন্ধের দাবি জানানো হয়।

uk

সভায় উত্তেজনা বিরাজ করায় কোনো সিদ্ধান্ত ছাড়াই সভাপতি সভা মুলতবি ঘোষণা করেন বলে অভিযোগ আসে। রমজান ও ঈদের পর পুনরায় সভা ডাকার আহ্বান করেন নেতাকর্মীরা। বলা হয়, আগামী সেপ্টেম্বরে শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে সম্মেলনের মাধ্যমে নতুন কমিটি করার আহ্বান জানানো হয়।

আট বছর পরে এসে পদ-পদবির প্রলোভন দেখিয়ে ও অর্থের বিনিময়ে কমিটিতে অন্তর্ভুক্তি এবং পদোন্নতি মেনে নেয়া হবে না বলে বক্তারা কঠোর হুঁশিয়ারি দেন। গত এক বছরে পর পর তিনটি কার্যকরী কমিটির সভা কোনো সিদ্ধান্ত ছাড়াই শেষ হওয়ায় অধিকাংশ নেতাকর্মী হতাশা ব্যক্ত করেন।

এ বিষয়ে বিবৃতি দেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বশারত আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক চন্দন দত্ত আব্দুর, সাংগঠনিক সম্পাদক রহিম বাদশা, আইন সম্পাদক, অ্যাডভোকেট শাহ মো. বকতিয়ার আলী, দফতর সম্পাদক মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী, জনসংযোগ সম্পাদক কাজী কয়েস আহমেদ, শিক্ষা সম্পাদক এম.এ. করিম জাহাঙ্গীর।

uk

এ ছাড়া মানবাধিকার সম্পাদক মেজবা আহমেদ, শিল্প ও বাণিজ্য সম্পাদক ফরিদ আলম, সদস্য শরীফ কামরুল আলম হীরা, কায়কোবাদ খাঁন, আসাফ মাসুক, গাজী মোহাম্মদ আলী লিটু, ইলিয়ার রহমান, হোসেন রানা, কামাল আহমেদ, সাজু আহমেদ ও আব্দুস শহিদ দুদু বিবৃতি দেন।

হাকিকুল ইসলাম খোকন/এমআরএম/এমকেএইচ

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]

আপনার মতামত লিখুন :