মায়ের সঙ্গে ওমরাহ পালন শেষে মারা গেলেন সৌদি প্রবাসী

ক ম জামাল উদ্দীন ক ম জামাল উদ্দীন , সৌদি আরব
প্রকাশিত: ১০:০১ পিএম, ১৫ জুন ২০১৯

সৌদি আরবের জেদ্দা বঙ্গবন্ধু স্মৃতি পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-প্রচার সম্পাদক কামরুজ্জামান (৪০) মারা গেছেন। শনিবার দুপুর ১টার দিকে ঘুমের মধ্যে না ফেরার দেশে চলে যান তিনি। কামরুজ্জামানের বাড়ি কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলার চরটেকি গ্রামে। তিনি জেদ্দার সানাইয়া আল সুরাইয়া কোম্পানিতে কর্মরত ছিলেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, তিন ছেলেসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

বঙ্গবন্ধু স্মৃতি পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান মাসুদ জাগো নিউজকে বলেন, দেশ থেকে কামরুজ্জামানের মা পবিত্র ওমরাহ পালনে সৌদি আরব আসেন এবং গতরাতে মাকে নিয়ে ওমরাহ পালন করেন। পরে মাকে হোটেলে রেখে সকালে জেদ্দায় কোম্পানির ভিলায় এসে ঘুমিয়ে পড়েন এবং দুপুর ১টার দিকে তার রুমমেট খাওয়ার জন্য তাকে ডাকতে গেলে অচেতন অবস্থায় দেখতে পান।

এ সময় তিনি কোম্পানির লোকজনকে বিষয়টি জানালে তারা এসে স্থানীয় পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ এসে মরদেহ বাদশাহ আব্দুল আজিজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। তার মৃত্যু সংবাদে প্রবাসীদের মাঝে শোকের ছায়া নেমে আসে এবং দুপুর থেকে জেদ্দা শহরের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ তার কোম্পানিতে ভিড় জমান।

বঙ্গবন্ধু স্মৃতি পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির নেতৃবৃন্দ কামরুজ্জামানের অকাল মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। তারা বলেন, কামরুজ্জামানের মৃত্যুতে রাজনীতি অঙ্গনের লড়াকু সৈনিককে হারালাম আমরা। আমরা তার রুহের মাগফিরাত কামনা করছি। তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করছি।

বঙ্গবন্ধু স্মৃতি পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মার্শাল কবির পান্নু কামরুজ্জামানের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করে এক বিবৃতিতে বলেন, কামরুজ্জামান বঙ্গবন্ধু স্মৃতি পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ছিলেন। তিনি অত্যন্ত সৎ ও বঙ্গবন্ধুর আদর্শের একনিষ্ঠ কর্মী ছিলেন। আল্লাহ তার পরিবারকে এই দুঃখ সইবার তৌফিক দান করুন। আপনারা সবা দোয়া করবেন।

বিএ/এমকেএইচ

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]

আপনার মতামত লিখুন :