জেনেভায় আন্তর্জাতিক শ্রম সম্মেলনে মালয়েশিয়ার মানবসম্পদ মন্ত্রী

আহমাদুল কবির
আহমাদুল কবির আহমাদুল কবির , মালয়েশিয়া প্রতিনিধি মালয়েশিয়া
প্রকাশিত: ০১:৩৬ পিএম, ১৬ জুন ২০১৯

সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় চলমান আন্তর্জাতিক শ্রম সম্মেলনে (আইএলসি) অংশ নিয়েছেন মালয়েশিয়ার মানবসম্পদ মন্ত্রী এম কুলাসেগারান। সম্মেলনে শ্রম সম্পর্কিত বিষয়ে আলোচনার কথা রয়েছে।

আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থা (আইএলও) আয়োজিত এই সম্মেলন গত ১০ জুন শুরু হয়, শেষ হবে আগামী ২১ জুন।

মালয়েশিয়ার সরকারি সংবাদ সংস্থা বারনামা জানিয়েছে, এম কুলাসেগারান সম্মেলনে মালয়েশিয়ার প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন।

দেশটির মানবসম্পদ মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সম্মেলনে মালয়েশিয়ার প্রতিনিধি দলের সদস্যরা পূর্ণাঙ্গ অধিবেশনে বিশেষ ফোরামের পাশাপাশি তিনটি প্রযুক্তিগত, স্ট্যান্ডার্ড অব অ্যাপ্লিকেশন, বিশ্বব্যাপী শ্রম সহিংসতা ও হত্যাকাণ্ডের দায় নির্ধারণ এবং শতাব্দীর ফলাফলের ডকুমেন্টারি প্রোগ্রামে উপস্থিত থাকবেন।

মন্ত্রী এম কুলাসেগারান আশা প্রকাশ করেন সম্মেলনে তারা আন্তর্জাতিক শ্রম মানদণ্ডে বিশেষ করে সুষ্ঠু কাজের পরিবেশ নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে মালয়েশিয়া যে অগ্রগতি অর্জন করেছে তা তুলে ধরতে পারবেন।

উল্লেখ্য, বিদেশি শ্রমিক নির্ভর মালয়েশিয়ার উৎপাদন ব্যবস্থা এবং উন্নত বিশ্বে পণ্যের বাজারজাত করণের ক্ষেত্রে দিসেন্ট শ্রম ব্যবস্থাপনা ও কর্মপরিবেশ নিশ্চিত করার জন্য মাহাথিরের বর্তমান সরকার কাজ করছে। এ কর্মপরিবেশের সঙ্গে বেতন, থাকা, খাওয়া, চিকিৎসা এবং বীমাও সম্পৃক্ত রয়েছে।

শ্রমিকদের উন্নতি, তাদের সুযোগ-সুবিধা ও অধিকার নিশ্চিত করার লক্ষ্যে ভার্সাই চুক্তি অনুযায়ী ১৯১৯ সালের ১১ এপ্রিল আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থা (আইএলও) প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৯৪৬ সালে এই সংস্থা জাতিসংঘের সহায়ক সংস্থা হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করে। এটি জাতিসংঘের সবচেয়ে পুরনো ও প্রথম বিশেষায়িত সংস্থা। এটি জাতিসংঘের একমাত্র ত্রিপক্ষীয় সংস্থা, যা সরকার, নিয়োগকর্তা বা মালিক ও শ্রমিকদের নিয়ে একসঙ্গে কাজ করে। ১৯৬৯ সালে সংস্থাটি উন্নয়নশীল দেশে শ্রমিক শ্রেণির মধ্যে শান্তি ও ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠার কারণে শান্তিতে নোবেল পুরস্কার লাভ করে।

আইএলওর সদর দফতর সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় অবস্থিত। বিশ্বে ৪০টিরও বেশি দেশে সংস্থাটির আঞ্চলিক দফতর (ফিল্ড অফিস) রয়েছে। আইএলওর পরিচালনা পরিষদ (গভর্নিং বডি) হচ্ছে সংস্থাটির নির্বাহী পরিষদ। বছরে তিনবার (মার্চ, জুন ও নভেম্বর) জেনেভায় নির্বাহী পরিষদের বৈঠক হয়। ১০টি দেশ স্থায়ী সদস্য। এগুলো হলো হচ্ছে- ব্রাজিল, চীন, ফ্রান্স, জার্মানি, ভারত, ইতালি, জাপান, রাশিয়া, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্র। বাকি ১৮ অস্থায়ী সদস্য প্রতি তিন বছর অন্তর সম্মেলনে নির্বাচিত হয়।

সংস্থাটি বছরে একবার আন্তর্জাতিক শ্রম সম্মেলন আয়োজন করে। এই সম্মেলনে আন্তর্জাতিক শ্রমের মানদণ্ড নির্ধারণ করা হয় এবং আইএলওর বাজেট ও পরিকল্পনা অনুমোদন দেয়া হয়।

এমএমজেড/এমএস

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]

আপনার মতামত লিখুন :