বাংলাদেশ আজ বিশ্বের বিস্ময়

কূটনৈতিক প্রতিবেদক কূটনৈতিক প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:৫২ এএম, ১৬ জুলাই ২০১৯

 

প্রবাসীদের দেশে বিনিয়োগ ও উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় অংশগ্রহণের আহ্বান জানিয়েছেন নিউ ইয়র্ক সফররত পরিকল্পনামন্ত্রী মোহাম্মদ আব্দুল মান্নান। দেশের উন্নয়নে প্রবাসী বাংলাদেশিদের অংশগ্রহণ জোরদার করার লক্ষ্যে সোমবার নিউ ইয়র্কের লাগোর্ডিয়া ম্যারিয়ট হোটেলে ‘এনআরবি এনগেজমেন্ট: দ্য ওয়ে ফরোয়ার্ড’ শীর্ষক দিনব্যাপী সেমিনারে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব বলেন।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের আয়োজনে সেমিনারটিতে সহ-আয়োজক ছিল এ-টু-আই, কেবিনেট ডিভিশন, আইসিটি ডিভিশন, ইউএসএইড, ইউএনডিপি, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও বেসরকারি সংস্থা ব্রিজ-টু-বাংলাদেশ। বিশেষ অতিথি হিসেবে যোগ দেন জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন ও নিউ ইয়র্কস্থ বাংলাদেশ কনস্যুলেটের কনসাল জেনারেল সাদিয়া ফয়জুন্নেছা।

পরিকল্পনা মন্ত্রী আব্দুল মান্নান বলেন, ‘বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে। বাংলাদেশ আজ বিশ্বের বিস্ময়। বাংলাদেশ আজ কৃষিতে স্বয়ংসম্পূর্ণ। চাল, ডাল, সবজি মাছ মাংসসহ নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্যপণ্য উৎপাদনে আমরা উদাহরণ সৃষ্টি করেছি। এডিবির (এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক) হিসাব মতে, বাংলাদেশ এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলে সবচেয়ে দ্রুত প্রবৃদ্ধি অর্জনকারী দেশ।’

তিনি বলেন, ‘এক কোটিরও বেশি প্রবাসী বাংলাদেশি প্রবাসে থেকে বাংলাদেশের উন্নয়নে অবদান রেখে চলেছেন। রেমিট্যান্স প্রেরণ করছেন যা আমাদের অর্থনীতির অন্যতম চালিকা শক্তি।’

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশে বিনিয়োগের অনুকূল পরিবেশ বিরাজ করছে। আপনারা দেশে বিনিয়োগ করুন, আপনাদের জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা বাংলাদেশের উন্নয়নে কাজে লাগান। সরকার আপনাদের নিরাপত্তা, জ্বালানি, বিদ্যুৎ, অবকাঠামো উন্নয়নসহ সকল ধরনের সুবিধা দেয়ার জন্য প্রস্তুত।’

southeast

বাংলাদেশে বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠাসহ বিনিয়োগের উন্নত পরিবেশ সৃষ্টি ও প্রবাসীদের কল্যাণে প্রধানমন্ত্রী যে উদারতা নিয়ে কাজ করছেন তা উল্লেখ করেন পরিকল্পনা মন্ত্রী।

সেমিনারে স্বাগত বক্তব্য দেন ব্রিজ-টু-বাংলাদেশের চেয়ারম্যান আজাদুল হক। প্রবাসীরা কীভাবে বাংলাদেশে বিনিয়োগসহ বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে অংশ নিতে পারবেন তার গেটওয়ে সংক্রান্ত একটি পোর্টাল প্রদর্শন করেন তিনি। প্রবাসীদের মেধা দেশের কল্যাণ ও উন্নয়নে কাজে লাগাতে এই প্লাটফর্মকে কাজে লাগানোর অনুরোধ জানান আজাদুল হক।

জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন প্রবাসে বসবাসরত বাংলাদেশি নাগরিকদের জ্ঞান, মেধা ও অর্জিত অভিজ্ঞতা বাংলাদেশের কল্যাণ ও উন্নয়নে কাজে লাগানোর আহ্বান জানান।

রাষ্ট্রদূত মাসুদ রেমিট্যান্স প্রেরণ ও বিনিয়োগ ছাড়াও বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় প্রবাসী বাংলাদেশিদের অসমান্য অবদানের কথা উল্লেখ করেন। তিনি দক্ষিণ-দক্ষিণ সহযোগিতার আওতায় বাংলাদেশে ‘দক্ষিণ-দক্ষিণ জ্ঞান ও উদ্ভাবন কেন্দ্র’ স্থাপন করার বিষয়ে বুয়েন্স আইরেসে বাপা+৪০ সম্মেলনে পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রদত্ত প্রস্তাবের কথা উল্লেখ করেন।

বাংলাদেশ দূতাবাস ওয়াশিংটন ডিসি’র ইকোনমিক মিনিস্টার মো. শাহাবুদ্দিন পাটোয়ারি বলেন, ‘বিদেশে বসবাসরত বাংলাদেশি সম্প্রদায়ের দেশের উন্নয়নে এগিয়ে আসার এখনই উপযুক্ত সময়। কারণ দেশে এখন বিনিয়োগসহ প্রবাসী অনুকূল পরিবেশ বিরাজ করছে।’ বাংলাদেশে যে অদম্য উন্নয়ন পরিক্রমা চলছে তাতে অংশ নিয়ে দেশকে আরও এগিয়ে নিতে প্রবাসীদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

অ্যাকসেস-টু-ইনফরমেশন (এটুআই) এর পলিসি অ্যাডভাইজর আনির চৌধুরী এ-টু-আইসহ বাংলাদেশে তথ্য-প্রযুক্তির ব্যাপক প্রসারতা, বিনিয়োগ বান্ধব পরিবেশ, বেজা, বেপজা, হাই-টেক পার্ক ও ডিজিটাল বাংলাদেশের বিভিন্ন সুবিধা ব্যবহার করে প্রবাসীরা দেশের উন্নয়নে কীভাবে অবদান রাখতে পারেন তা তুলে ধরেন।

জেপি/এমআরএম

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]

আপনার মতামত লিখুন :