যে তাসবিহ পাঠে নেকি লাভ ও গোনাহ মাফ হয়

ধর্ম ডেস্ক
ধর্ম ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:১৭ পিএম, ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

আল্লাহর প্রশংসা বাক্যই হলো তাসবিহ। তার নামের তাসবিহ যে কত মধুর ও শান্তিদায়ক তা আল্লাহ প্রেমিকরাই উপলব্ধি করতে পারে। যে বা যারা ব্যক্তি জীবনে একবার হলেও তার প্রেমে তাসবিহ পড়েছেন কিংবা তার তাসবিহ-এর স্বাদ গ্রহণ করেছেন; তারাই জানেন যে আল্লাহর তাসবিহতে কি স্বাদ বা মহত্ম নিহিত রয়েছে।

আল্লাহ তাআলার তাসবিহ মূলত মানুষের মনের সুখ ও শান্তি লাভের এক অনন্য মহৌষধ। আল্লাহ তাআলা বলেন-

‘যারা বিশ্বাস করেছে এবং আল্লাহর স্মরণে যাদের হৃদয় প্রশান্ত হয়। জেনে রাখ, আল্লাহর স্মরণের (এর প্রধান বৈশিষ্ট্য এই যে, উহা) দ্বারা অন্তর প্রশান্তি লাভ করে। (সুরা রাদ : আয়াত ২৮)

অন্তরের প্রশান্তি লাভের পাশাপাশি আল্লাহর তাসবিহ আদায়ে দুনিয়া ও পরকালে বান্দার জন্য রয়েছে বিরাট প্রতিদান। হাদিসে পাকে এসেছে-

হজরত সাদ ইবনে আবি ওয়াক্কাস রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত তিনি বলেন, একদিন আমরা রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম-এর কাছে ছিলাম। এ সময় তিনি (রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বললেন, তোমাদের কেউ কি একদিনে এক হাজার নেকি অর্জন করতে সক্ষম? তাঁর সঙ্গে বসা লোকদের কেউ কেউ বললেন- ‘আমাদের কেউ কিভাবে একদিনে এক হাজার নেকী আদায় করতে সক্ষম হবেন?

তখন তিনি (রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বললেন, কেউ যদি একদিনে ১০০ বার ‘সুবহানাল্লাহ’ (سُبْحَانَ الله) পড়ে তাহলে তার জন্য এক হাজার নেকি লেখা হবে অথবা তার এক হাজার গোনাহ মাফ করে দেয়া হবে।’ (মুসলিম, তিরমিজি, ইবনে হিব্বান, তারগিব)

আল্লাহ তাআলা কুরআনে পাকে জিকির বা তার স্মরণকে আত্মার প্রশান্তির কারণ হিসেবে বর্ণনা করেছেন। আবার তার তাসবিহ পাঠের অসামান্য ফজিলত ঘোষণা করেছেন।

সুতরাং মুসলিম উম্মাহর উচিত, জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে তার তাসবিহ তথা প্রশংসা করা। কেননা আল্লাহর প্রশংসায় রয়েছে অসংখ্য নেকি লাভ এবং গোনাহ মাফের হাতছানি।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে প্রশান্তি লাভে তার তাসবিহ আদায়ের তাওফিক দান করুন। বিশেষ করে নিয়মিত এ ছোট্ট তাসবিহ (১০০ বার সুবহানাল্লাহ) আদায় করে হাজার নেকি লাভ কিংবা হাজার গোনাহ থেকে মুক্তি লাভের তাওফিক দান করুন। আমিন।

এমএমএস/এএ/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :