সাইরেনবিহীন অ্যাম্বুলেন্স!

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা মদিনা থেকে
প্রকাশিত: ০১:২৫ পিএম, ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮

অ্যাম্বুলেন্সে সাইরেন না বাজিয়ে রোগী পরিবহন- এমন কথা শুনে অনেকে বিশ্বাস করতে নাও পারেন। বাংলাদেশের প্রেক্ষাপট বিবেচনায় এমনটা ভাবাই স্বাভাবিক। কারণ বাংলাদেশে অ্যাম্বুলেন্স মানেই সজোরে সাইরেন বাজানো, যানজটে পড়ে চালকের উচ্চকণ্ঠে ক্রমাগত ‘রোগী আছে, সাইড দেন, সাইড দেন’ বলে চিৎকারের দৃশ্য নিত্যদিনের। কিন্তু ব্যতিক্রম মদিনা আল মনোয়ারা।

আজ (মঙ্গলবার) ফজরের নামাজের পর মসজিদে নববীর ১৭ নম্বর গেট দিয়ে একটি অ্যাম্বুলেন্স চত্বরে প্রবেশ করে। ফজরের নামাজ শেষে হাজিরা এখানে বসে ধর্মীয় আলোচনায় মশগুল। অ্যাম্বুলেন্সটি ভেতরে প্রবেশের জন্য বাসার দরজায় টোকা দেয়ার মতো ঠক ঠক শব্দ করতে লাগলেন। একটি বারের জন্য অ্যাম্বুলেন্স চালক হর্ন বা সাইরেন বাজালেন না। বার বার ঠক ঠক শব্দ করে অসুস্থ রোগীর কাছে পৌঁছালো।

পাকিস্তানি মধ্যবয়সী এক লোকের নাক ও কপাল থেকে রক্ত ঝরছে। লোকটিকে ধরে অ্যাম্বুলেন্সে তুলতে ড্রাইভারসহ দুজন এগিয়ে এলেন। দ্রুত তাকে নিয়ে অ্যাম্বুলেন্সটি চলে গেল। এবারও একটি বারের জন্য সাইরেন বাজলো না চালক।

তবে স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, অ্যাম্বুলেন্স একেবারেই সাইরেন যে বাজেনা তা ঠিক নয়, প্রয়োজনে অনেক সময় বাজানো হয়। তবে পারতপক্ষে সাইরেন বাজান না চালকরা।

এমইউ/এমবিআর/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :