ঈমান যে কারণে সব আমলের ভিত্তি

ধর্ম ডেস্ক
ধর্ম ডেস্ক ধর্ম ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:৪৮ পিএম, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ঈমান মানুষের অমূল্য সম্পদ। কোনো দাম দিয়ে ঈমান কেনা যায় না। আল্লাহর পথে টাকা-পয়সা খরচ করার বিনিময়ে নেকি লাভ করা যায়। কিন্তু ঈমান বড় মূল্যবান জিনিস যা কেনার বস্তু নয়। এ কারণেই ঈমান হচ্ছে সব আমলের বুনিয়াদ বা ভিত্তি। যার ঈমান নেই, তার কোনো আমলই আল্লাহ তাআলার দরবারে কবুল হয় না।

শুধু তা-ই নয়, ঈমান এমন এক অমূল্য নেয়ামত; যদি কারো ঈমান বিশুদ্ধ না হয়, তাহলেও তার আমল গ্রহণযোগ্য হবে না। রূহ তথা প্রাণ ছাড়া দেহ যেমন, তেমনি ঈমান ছাড়া আমলও তেমন। আল্লাহ তাআলা কুরআনে পাকে ঘোষণা করেন- যারা কাফের (যাদের ঈমান নেই) তাদের আমলসমূহ মরুভূমির মরিচিকার ন্যায়।' (সুরা নূর : আয়াত ৩৯)

বিশাল মরুভূমির মাঝে অনেক দূর প্রান্তরে লক্ষ্য করলে দেখা যায় যেন পানি চিকচিক করছে; কিন্তু যখনই ওই পানির সন্ধানে দূর প্রান্তরে ছুটে যায়, সেখানে গেলে দেখা যায় বাস্তবে পানির কোনো নাম নিশানাও নেই। সুতরাং যাদের ঈমান নেই তাদের আমলও অনুরূপ। এমনিতে মনে হবে অনেক অনেক আমলকারী মূলত ঈমান না থাকার ফলে কিংবা ঈমানে বিশুদ্ধতা না থাকার ফলে তার কোনো আমলই ফলপ্রসু হয়নি আর পরকালে তা কোনো কাজেই আসবে না।

আর এ কারণেই ঈমানকে সব আমলের ভিত্তি বলা হয়। সুতরাং সব কিছুর আগে মানুষের ঈমান গ্রহণ মানুষের সবচেয়ে বড় ফরজ তথা আবশ্যক কাজ। ঈমান গ্রহণের মাধ্যমে মানুষের ওপর ইসলামের যাবতীয় বিধি-নিষেধ পালন করা সব্যস্ত হয়। ঈমান গ্রহণের আগে মানুষের জন্য কোনো ইবাদত কিংবা নেক আমল নেই।

ঈমান গ্রহণ ছাড়া যত নেক আমলই করা হোক না কেন; মানবতার যত জয় গান গাওয়া হোক না কেন; অধিকার আদায়ে যত সংগ্রামই হোক না কেন; পরকালে তা কোনো কাজে আসবে না। এ কারণেই আল্লাহ তাআলা কুরআনুল কারিমে ইরশাদ করেন-
নিশ্চয় মানুষ ক্ষতির মধ্যে নিমজ্জিত। তারা ব্যতিত, যারা (প্রথমে) ঈমান গ্রহণ করছে এবং (অতঃপর) নেক কাজ করেছে।' (সুরা আসর : আয়াত ২)

আল্লাহর ঘোষণা ঈমান লাভকারী ও নেক আমলকারী ব্যক্তি ব্যক্তি ব্যতিত সবাই ক্ষতিগ্রস্ত। এখান থেকেও বুঝা যায় যে, ঈমানের গুরুত্ব কত বেশি।

পরিশেষে...
যারা ঈমান লাভ করে ঈমানের ওপর অটল ও অবিচল থাকবে তাদের ব্যাপারে মহান আল্লাহর ঘোষণা এরকম যে, যারা এরকম ঈমান-আমলের ওপর থাকে, তারাই হেদায়েতপ্রাপ্ত, আর তারাই কামিয়াব বা সফলকাম।' (সুরা বাকারা : আয়াত ৫)

তাইতো প্রিয়নবি ঘোষণা হজরত আবু যার রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করে বলেন, যে লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ বলবে (তাওহিদের কালেমা বলে ঈমান লাভ করবে), আর এর ওপর মৃতু্যবরণ করবে; সে জান্নাতে যাবে।' (মুসলিম)

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে ঈমানের অমূল্য নেয়ামত লাভ করার তাওফিক দান করুন। প্রিয়নবির ঘোষণায় ঈমানের অমূল্য নেয়ামত লাভে জান্নাত লাভের তাওফিক দান করুন। আমিন।

এমএমএস/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :