‘অ্যামিজিঘি’ উপজাতি ভাষায় কুরআনের তাফসির প্রকাশ

ধর্ম ডেস্ক
ধর্ম ডেস্ক ধর্ম ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:৩১ পিএম, ০৮ জানুয়ারি ২০১৯

পশ্চিম আফ্রিকার ভূমধ্যসাগরের তীরবর্তী দেশ আলজেরিয়া। দেশটির পূর্ব ও দক্ষিণাঞ্চলের উপজাতীয়দের ভাষা ‘অ্যামিজিঘি’। এছাড়াও মরক্কো, লিবিয়া এবং মালিসহ কয়েকটি দেশে মানুষও ‘অ্যামিজিঘি’ উপজাতি ভাষায় কথা বলেন। উপজাতি মানুষের সুবিধার্থে এবার ‘অ্যামিজিঘি’ ভাষায় পবিত্র কুরআনের তাফসির প্রকাশ করছে ‘আলজেরিয়া নামায় জামিয়াত’ নামক একটি সংগঠন।

সংগঠনটি ২ বছর আগে ‘অ্যামিজিঘি’ ভাষায় কুরআনের তাফসির প্রকাশের কার্যক্রম শুরু করে। আগামী ১২ জানুয়ারি থেকে ‘অ্যামিজিঘি’ ভাষাভাষীর মানুষ এ তাফসির হাতে পাবে। অ্যামিজিঘি ভাষায় কুরআনের তাফসিরের অনুবাদ করেন শেখ মাহনাদ।

প্রাথমিকভাবে আলজেরিয়ার সংগঠনটি আফ্রিকা ও ইউরোপের অ্যামিজিঘি সম্প্রদায়ের মাঝে কুরআনের ৬ হাজার তাফসির প্রিন্ট ও বিতরণ করবে।

উল্লেখ্য যে, এশিয়ান ও আফ্রিকান উৎস থেকেই ‘অ্যামিজিঘি’ উপজাতি ভাষার উৎপত্তি হয়েছে বলে জানা যায়। তবে কি পরিমাণ মানুষ এ ভাষায় কথা বলেন সে বিষয়ে সঠিক কোনো পরিসংখ্যান নেই।

তবে ‘অ্যামিজিঘি’ উপজাতি ভাষাটি অনেক প্রাচীন বলে মনে হয়। কারণ তাদের নিজস্ব ক্যালেন্ডারের সঙ্গে ইংরেজি ক্যালেন্ডারের প্রায় সাড়ে ৯শ’ বছর পার্থক্য। বর্তমানে অ্যামিজিঘি উপজাতিরা ২৯৬৭ সাল গণনা করছে।

বিশ্বের বিভিন্ন ভাষায় অনুবাদ হয়ে পবিত্র কুরআনুল কারিমের কলেবর দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। এর ফলে অনেক মানুষ ইসলাম ও কুরআন সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারছে। এভাবেই একদিন বিশ্বের প্রতিটি জনপদে পৌছবে ইসলামের সুমহান দাওয়াত।

এমএমএস/পিআর