যে সব শর্ত ও হুকুম মেনে জুমআ আদায় করতে হয়

ধর্ম ডেস্ক
ধর্ম ডেস্ক ধর্ম ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৩১ পিএম, ২২ নভেম্বর ২০১৯

মুসলমানদের সাপ্তাহিক ইবাদতের শ্রেষ্ঠ দিন ইয়ামুল জুমআ তথা শুক্রবার। এ দিনের সুনির্দিষ্ট কিছু কাজ ও নামাজসহ ইবাদত-বন্দেগির রয়েছে অনেক ফজিলত। শুক্রবার জোহরের সময় যে নামাজ আদায় করা হয় তাকে বলা হয় জুমআ।

সপ্তাহিক ফজিলতপূর্ণ ফরজ নামাজ জুমআ। জুমআ নামাজ আদায়ে রয়েছে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ শর্ত ও হুকুম। যে শর্ত ও হুকুম পাওয়া গেলে জুমআ আদায় করতে হয়, তা জানা সবার জন্যই জরুরি। আর তাহলো-

জুমআর হুকুম

>> জুমআ নামাজ দুই রাকাআত আদায় করতে হয়। প্রত্যেক মুসলিম, প্রাপ্তবয়স্ক, বিবেকবান, স্বাধীন এবং সুনির্দিষ্ট জনপদে স্থায়ীভাবে বসবাস করে এমন ব্যক্তির উপর জুমআ নামাজ আদায় করা ফরজ।
>> জুমআ নামাজ নারী, রোগী, শিশু, মুসাফির ও দাস-দাসীর উপর ফরজ নয়। তবে এদের মধ্যে যারা জুমআ নামাজে হাজির হবে তা তাদের জন্য যথেষ্ট হয়ে যাবে।
>> আর মুসাফির তথা ভ্রমণকারী ব্যক্তি যদি কোনো স্থানে যাত্রা বিরতি করে এবং সেটি জুমআ নামাজের সময় হয় কিংবা জুমআ নামাজের আজান শুনতে পায় তবে তার জন্য জুমআ আদায় করা জরুরি।

জুমআ নামাজের জন্য রয়েছে কিছু শর্ত। আর তাহলো-

>> জুমআ নামাজ তার সময়ের মধ্যে (জোহর নামাজের ওয়াক্তে) আদায় করা ওয়াজিব।
>> যেখানে জুমআ অনুষ্ঠিত হবে সে জনপদের কমপক্ষে দুই বা তারও বেশি নামাজির উপস্থিতি আবশ্যক।
>> জুমআ নামাজের আগে দুটি খোতবা দিতে হবে।
>> জুমআ নামাজর খোতবায় আল্লাহর প্রশংসা, তাঁর জিকির, স্মরণ ও শুকরিয়া থাকতে হবে।
>> জুমআর খোতবায় উপস্থিত ধর্মপ্রাণ মুসল্লিদের দ্বীন ইসলাম তথা আল্লাহ ও রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলইহি ওয়া সাল্লামের আনুগত্যের দিকে আহ্বান, উৎসাহ প্রদান করতে হবে।
>> আল্লাহর একত্ববাদ, প্রিয় নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামসহ সব নবি-রাসুলদের রেসালাত এবং পরকালের ব্যাপারে নসিহত করতে হবে।
>> তাকওয়া তথা আল্লাহর ভয় সম্পর্কে নসিহত করতে হবে।
>> জুমআ নামাজ আদায়কারীর জন্য জোহরের পড়ার প্রয়োজন নেই। জুমআ-ই জোহরের জন্য যথেষ্ট।
>> জুমআ নামাজের হেফাজত করা ফরজ। অর্থাৎ যথা সময়ে জুমআ আদায় করতে হবে এবং জুমআ আদায়ে আগে আগে মসজিদে চলে যাওয়াও আবশ্যক। আর এতে রয়েছে অনেক ফজিলত।
>> পর পর ৩ জুমআ ত্যাগ করলে আল্লাহ তাআলা মানুষের অন্তরে মোহর মেরে দেন। (নাউজুবিল্লাহ)

সুতরাং মুসলিম উম্মাহর উচিত, জুমআর নামাজের হুকুম ও শর্তসমূহ জুমআ নামাজ আদায় করা এবং জুমআ নামাজের ব্যাপারে সতর্ক থাকা।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে তাদের সাপ্তাহিক সেরা ইবাদতের দিন জুমআ নামাজ আদায়সহ অন্যান্য ইবাদত-বন্দেগিতে দিনটি অতিবাহিত করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

এমএমএস/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]

আরও পড়ুন