জুমআর নামাজে রাকাআত ছুটে গেলে কী করবেন?

ধর্ম ডেস্ক
ধর্ম ডেস্ক ধর্ম ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:২২ পিএম, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০

রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন, ‘যে ব্যক্তি অবহেলা ও অলসতা করে পর পর তিন জুমআ ছেড়ে দেবে, মহান আল্লাহ তার অন্তরে মোহর মেরে দেবে।’ কিন্তু জুমআ পড়তে গিয়ে যদি দেখে যে জুমআর নামাজ শুরু হয়েগেছে কিংবা এক রাকাআত বা তারও বেশি পড়া হয়ে গেছে তবে এ সময় করণীয় কী?

এ সম্পর্কে সৌদি আরবের ওলামা কমিটি এক ফতোয়ায় উল্লেখ করেন-
কারও জুমআর এক রাকআত ছুটে গেলে বাকি আর এক রাকআত ইমামের সঙ্গে পড়বে তারপর সালাম ফেরানোর পর ছুটে যাওয়া এক রাকাআত উঠে পড়ে নিলে তার জুমআ আদায় হয়ে যাবে।
অনুরুপ কেউ দ্বিতীয় রাকআতের রুকূর আগে থেকে পেলেও ওই রাকাআত এবং তার সঙ্গে আর এক রাোআত পড়লে ওই ব্যক্তিরও জুমআ আদায় হয়ে যাবে।
কিন্তু যদি কেউ দ্বিতীয় রাকাআতের রুকূ শেষ হওয়ার পর জামাআতে শামিল হয়, তবে সে জুমআর নামাজ পাবে না। এই অবস্থায় তাকে জোহরের ৪ রাকাআত আদায়ের নিয়তে জামাআতে শামিল হয়ে ইমামের সালাম ফেরানোর পর ৪ রাকআত ফরজ পড়তে হবে।

এ সম্পর্কে হাদিসে এসেছে-
হজরত ইবনে মাসউদ রাদিয়াল্লাহু আনহু বলেন, ‘যে ব্যক্তি জুমআর এক রাকাআত পেয়ে যায়, সে ব্যক্তি যেন আর এক রাকাআত পড়ে নেয়। কিন্তু যে (দ্বিতীয় রাকাআতের) রুকূ না পায়, সে যেন জোহরের ৪ রাকাআত পড়ে নেয়।’ (তাবারানি, বায়হাকি, মুসান্নেফে ইবনে আবি শায়বা)

>> আর যদি কোনো ব্যক্তি জুমআর নামাজ না পায় বা মসজিদে গিয়ে দেখে জুমআ নামাজ শেষ হয়ে গেছে তবে ওই ব্যক্তি জোহরের ৪ রাকাআত নামাজ পড়ে নেবে। কারণ জামাআত ছাড়া একা একা জুমআ নামাজ পড়া যায় না।

এমএমএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]