আসন্ন হজের বিষয়ে ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর কাছে কোনো বার্তা নেই

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৩:০২ পিএম, ০৯ জুন ২০২১ | আপডেট: ০৩:২৩ পিএম, ০৯ জুন ২০২১

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান বলেছেন, চলতি বছর পবিত্র হজ পালন করতে বাংলাদেশ থেকে কোনো যাত্রী যাবে কি-না সে ব্যাপারে তার কাছে কোনো মেসেজ (বার্তা) নেই। সৌদি বাদশাহ’র পক্ষ থেকে এ বিষয়ে কোনো মেসেজ বা চিঠিও আসেনি। এ ধরনের কোনো চিঠি বা মেসেজ পেলে গণমাধ্যমকর্মীদের কাছে তা বিস্তারিত তুলে ধরা হবে। সুতরাং এ মুহূর্তে হজ নিয়ে কোনো চিন্তা করছি না।

তিনি বলেন, হজ নিয়ে অনেকেই অনেক কথা বলছেন কিন্তু সেগুলো মিথ্যা ও বানোয়াট। তবে কোনো সুযোগ এলে সেজন্য সর্বাত্মক প্রস্তুতি রয়েছে এবং সরকারপ্রধান ও ধর্ম মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে সর্বাত্মক সহায়তা করা হবে।

বুধবার (৯ জুন) রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে আয়োজিত এক প্রেস ব্রিফিংয়ে গণমাধ্যমকর্মীদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

মুজিববর্ষে প্রতিটি জেলা ও উপজেলায় একটি করে মোট ৫৬০টি মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র স্থাপন করা হবে। সেই প্রকল্পের আওতায় আগামীকাল বৃহস্পতিবার (১০ জুন) ৫০টি মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের উদ্বোধন উপলক্ষে এই প্রেস ব্রিফিংয়ের আয়োজন করা হয়। এতে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী গণমাধ্যমকর্মীদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন।

jagonews24

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল গত ৩ জুন জাতীয় সংসদে প্রস্তাবিত বাজেট পেশের সময় করোনার কারণে গত বছরের মতো এবারও সৌদি আরবে হজ যাত্রী যেতে পারবেন না বলে জানিয়েছিলেন- এ ব্যাপারে আপনি কোনো সম্ভাবনা দেখছেন কি-না জানতে চাইলে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে যদি স্বল্প সংখ্যক হজযাত্রী সৌদি সরকার নেয়, সেক্ষেত্রে সম্ভাবনা রয়েছে। এ কারণেই নিশ্চিতভাবে কিছুই বলা ঠিক হবে না।

ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নুরুল ইসলাম বলেন, কোন দেশ থেকে কতজন হাজি যাবে তা নির্ধারণ করার এখতিয়ার সৌদি আরবের হজ ও ওমরাহ-বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের। এখন পর্যন্ত তাদের কাছ থেকে কোনো চিঠি আসেনি।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের একজন শীর্ষ দায়িত্বশীল কর্মকর্তা জানান, হজযাত্রী পাঠানোর জন্য একটি নির্দিষ্ট প্রক্রিয়া (হজ বিষয়ক চুক্তি ও বাড়ি ভাড়াসহ বিভিন্ন কার্যক্রম) অনুসরণ করতে হয়। সেগুলো করার জন্য যে সময়ের প্রয়োজন তা শেষ হয়ে গেছে। ফলে এবার হজযাত্রী না যাওয়ার সম্ভাবনাই সবচেয়ে বেশি বলে ওই কর্মকর্তা মন্তব্য করেন।

এমইউ/এআরএ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]