কলরবের ‘হলি টিউন’-এ বাড়ছে ইসলামি সংগীতের আবেদন

ইসলাম ডেস্ক
ইসলাম ডেস্ক ইসলাম ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:০৪ পিএম, ২৬ জানুয়ারি ২০২২

সুর ও সংগীতের প্রতি মানুষের আকর্ষণ সহজাত। চিরকালই মানুষের হৃদয়-মন শিল্পী-গায়কদের মনমাতানো ও ভুবনমোহিনী কণ্ঠে মুগ্ধ হয়েছে। সুখ-দুঃখ, আনন্দ-বেদনায় সব সময়ই সংগীত বিনোদনের উৎকৃষ্ট এক উপাদান। আর সেই সংগীত যদি হয় সত্য ও সুন্দরের আবহমিশ্রিত, ইসলামের শাশ্বত বাণী সমৃদ্ধ এবং আল্লাহ ও রাসুলের প্রশংসাময়; তাহলে তার মাহাত্ম্য ও আবেদন বহুগুণে বেড়ে যায়।

মুসলিম প্রধান দেশ বলেই সেই প্রাচীনকাল থেকেই বাংলাদেশে এ ধারার সংগীত পরিচালিতে হয়ে আসছে। হালে ইসলামী সংগীতের জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পেয়েছে বহুগুণে। সম্প্রতি জনপ্রিয় ইসলামী সংগীতের চ্যানেল ‘হলি টিউন’-এ ৫০ লক্ষ সাবস্ক্রাইব সে সাফল্যেরই প্রমাণ বহন করে।

এখন পর্যন্ত সংগীতপ্রেমীরা একশ এক কোটি ১৭ লক্ষ ৩৫ হাজারেরও বেশি বার এই চ্যানেল থেকে সংগীত উপভোগ করেছেন। অথচ ২০১৬ সালে পথচলা শুরু করেছে হলি টিউন। ইতিমধ্যে ‘হলি টিউন’ চ্যানেলটিতে আপলোড হয়েছে ৭০০ এর বেশি ভিডিও।

জাতীয় শিশু কিশোর সাংস্কৃতিক সংগঠন কলরবের অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেল হলো- ‘হলি টিউন’। চ্যানেলটিতে ‘সাল্লি আলা মুহাম্মদ, ত্রি ভুবনের প্রিয় মুহাম্মদ, সালাম ও আল্লাহ আল্লাহসহ অনেকগুলো গান এক কোটির বেশি ভিউ হয়েছে। এর মধ্যে সর্বোচ্চবার দেখা হয়েছে ‘এলো খুশির ঈদ’ গানটি। যা দেখার সংখ্যা ৪২ মিলিয়ন তথা চার কোটি ২৭ লক্ষ অতিক্রম করেছে।

ইসলামী সংগীতের এমন অভাবনীয় সাফল্য ও প্রচার সম্পর্কে জানতে চাইলে হলি টিউনের প্রধান নির্বাহী জনপ্রিয় শিল্পী মুহাম্মদ বদরুজ্জামান জানান-

‘ইসলামের আওয়াজ সর্বত্র ছড়িয়ে দেওয়ার স্বপ্ন লালন করে আমরা কাজ করছি। সুরের মাধ্যমে মানুষকে সুস্থ বিনোদন দিতে চাই আমরা। এ ধারার সংগীত বরাবরই শ্রোতাদের পছন্দ ছিল, আছে এবং থাকবে।

তিনি বলেন, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম অনেক ইসলামী সংগীত লিখেছেন। এভাবে সময়ে সময়ে বিক্ষিপ্তভাবে অনেকে ইসলামী সংগীত নিয়ে কাজ করেছেন। কিন্তু আমরা চেয়েছি- ‘সাংগঠনিকভাবে, দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনার আলোকে ইসলামী সংগীতকে প্রতিষ্ঠিত ধারায় নিয়ে যেতে। বিরাট এ স্বপ্ন নিয়ে মরহুম আইনুদ্দীন আল আজাদ কলরব প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। তিনি ২০১০ সালে এক সড়ক দুর্ঘটনায় তিনি ইন্তেকাল করেন।’

বদরুজ্জামান আরও বলেন, ‘তার একজন শিষ্য হিসেবে সবসময় আমার চেষ্টা ছিল, তার স্বপ্ন বাস্তবায়ন করা। সে ধারাবাহিকতায় যুগের চাহিদার ভিত্তিতে ২০১৬ সালে হলি টিউন চ্যানেলের যাত্রা শুরু। আলহামদুলিল্লাহ! রাতদিনের দীর্ঘ পরিশ্রমে আজ হলি টিউন ৫০ লক্ষ সাবস্ক্রাইবের একটি বড় মাইলফলক স্পর্শ করেছে। এর জন্য আমাদের সকল শিল্পী, সুরকার, গীতিকার, শুভানুধ্যায়ী ও শ্রোতাদের শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করছি। তাদের আন্তরিক ভালোবাসা কলরবের পথচলাকে সুগম করেছে।

‘হলি টিউন’ চ্যানেলের বিশেষ কিছু গানের নাম জানতে চাইলে এর পরিচালক সাইদ আহমদ বলেন, ঈদের গান- ‘এলো খুশির ঈদ, ত্রিভূবনের প্রিয় মুহাম্মদ, এলো খুশির বারাত নিয়ে শবে বারাত, আমি দেখিনি তোমায়’; প্রতিবাদী সংগীত- ‘তুমি কেমন মুসলমান’; মরমি গজল- ‘হারিয়ে যাবো একদিন’; নাতে রাসুল- ‘হৃদয় মাঝে মালা গাঁথি’; হামদ- ‘আল্লাহ আল্লাহ, আজব টাকা, সাল্লিআলা মুহাম্মাদ, ইশকে নাবী জিন্দাবাদসহ আরও অন্যান্য সংগীত।

‘হলি টিউন’ চ্যানেলে গাওয়া ইসলামী সংগীতের জনপ্রিয় শিল্পীরা হলেন- সাঈদ আহমাদ, মুহাম্মদ বদরুজ্জামান, আবু রায়হান, আহমদ আব্দুল্লাহ, শিশু কারী আবু রায়হান, মাহফুজুল আলম, তাওহীদ জামিল, আহনাফ খালিদ, ফজলে এলাহী সাকিব, রিফাত রহমান, জাহিদুল ইসলাম শাওন ও শিশুশিল্পী হোজায়ফাসহ আরও অনেকে।

দেশবাসীর কাছে ইসলামী সংস্কৃতির ক্রমবিকাশে ‘হলি টিউন’-এর সমৃদ্ধি কামনা করেছে কলরব পরিবার।

এমএমএস/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]