নবিজির (সা.) খুতবা

যার জন্য জান্নাতের দরজাসমূহ খুলে দেওয়া হবে

ফারুক ফেরদৌস
ফারুক ফেরদৌস ফারুক ফেরদৌস , সহ-সম্পাদক, জাগো নিউজ
প্রকাশিত: ০৭:১৫ পিএম, ২৩ ডিসেম্বর ২০২৩

আব্দুল্লাহ ইবনে আমর ইবনুল আস (রা.) বলেন, একদিন আল্লাহর রাসুল (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) মিম্বরে দাঁড়িয়ে বললেন, ‘শপথ করছি, শপথ করছি’ তারপর তিনি নেমে এসে বললেন, সুসংবাদ দিয়ে দিন যে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়বে এবং কবিরা গুনাহ করা থেকে বিরত থাকবে, সে জান্নাতের যে দরজা দিয়ে ইচ্ছা জান্নাতে প্রবেশ করবে।

এক ব্যক্তি ইবনে আমরকে প্রশ্ন করলেন, আপনি কি আল্লাহর রাসুলকে (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) কবিরা গুনাহগুলোর কথা বলতে শুনেছেন?

তিনি বললেন, হ্যাঁ। বাবা মাকে কষ্ট দেওয়া, আল্লাহর সাথে শিরক করা, হত্যা করা, নারীদের অপবাদ দেওয়া, ইয়াতিমের সম্পদ আত্মসাৎ করা, যুদ্ধ থেকে পালানো, সুদ খাওয়া। (মাজমাউয-যাওয়ায়েদ, তাবরানি)

আবু হোরায়রা ও আবু সাঈদ (রা.) বলেন, একদিন আল্লাহর রাসুল (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) আমাদেরকে সম্বোধন করে তিনবার বললেন, ‘ওই সত্তার শপথ যার হাতে আমার প্রাণ’ তারপর তিনি মাথা নিচু করলেন। আমাদের প্রত্যেকেই মাথা নিচু করলো এবং কেঁদে ফেললো। আমরা বুঝতে পারছিলাম না যে, তিনি কী বলার জন্য শপথ করেছেন। কিছুক্ষণ তিনি তার মাথা ওঠালেন, তার চেহারায় তখন আনন্দের দ্যুতি দেখা গেলো, যা আমাদের কাছে সব রকম নেয়ামতের চেয়ে বেশি প্রিয় ছিল। তিনি বললেন, যে বান্দা প্রতিদিন পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করে, রমজান মাসে রোজা রাখে, জাকাত দেয় এবং সাতটি কবিরা গুনাহ থেকে বেঁচে থাকে, তার জন্য জান্নাতের দরজাসমূহ খুলে দেওয়া হবে এবং তাকে বলা হবে যে, তুমি নিশ্চিন্ত মনে জান্নাতে প্রবেশ কর। (সুনানে নাসাঈ)

ওএফএফ/জেআইএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।