মুমিনদের বিদ্রূপ করার পরিণতি

ফারুক ফেরদৌস
ফারুক ফেরদৌস ফারুক ফেরদৌস , সহ-সম্পাদক, জাগো নিউজ
প্রকাশিত: ১০:২৪ এএম, ১৬ মে ২০২৪

সুরা মুতাফফিফীন‌ কোরআনের ৮৩তম সুরা, এর আয়াত সংখ্যা ৩৬টি। সুরা মুতাফফিফীন‌ মক্কায় অবতীর্ণ হয়েছে। ‘মুতাফফিফীন’ শব্দটি ‘মুতাফফিফ’ শব্দের বহুবচন, অর্থ ওজনে কম দেয় এমন ব্যক্তি। ওজনে কম দেয় এমন ব্যক্তিদের শাস্তির ঘোষণা দিয়ে শুরু হয়েছে সুরাটি। সুরাটিতে আরও আলোচিত হয়েছে, কেয়ামতের দিনের ভয়াবহতা, নেক ও বদ আমলকারীদের আখেরাতের ঠিকানা, মুমিনদের আখেরাতের বিভিন্ন নেয়ামত, কাফেরদের শাস্তি ইত্যাদি।

সুরা মুতাফফিফীনের ২৯-৩৬ আয়াতে আল্লাহ তাআলা বলেছেন,

(২৯)

إِنَّ الَّذِينَ أَجْرَمُوا كَانُوا مِنَ الَّذِينَ آمَنُوا يَضْحَكُونَ

ইন্নাল্লাযীনা আজরামূ কানূ মিনাল্লাযীনা আমানূ ইয়াদহাকূন।
যারা অপরাধী, তারা বিশ্বাসীদের উপহাস করত।

(৩০)

وَإِذَا مَرُّوا بِهِمْ يَتَغَامَزُونَ

ওয়া ইযা-মাররূ বিহিম ইতাগা-মাঝূন।
এবং তারা যখন তাদের কাছ দিয়ে গমন করত তখন পরস্পরে চোখ টিপে ইশারা করত।

(৩১)
وَإِذَا انْقَلَبُوا إِلَى أَهْلِهِمُ انْقَلَبُوا فَكِهِينَ

ওয়া ইযা-নকালাবূ ইলা আহলিহিমু-নকালাবূ ফাকিহীন।
তারা যখন তাদের পরিবার-পরিজনের কাছে ফিরত, তখনও হাসাহাসি করে ফিরত।

(৩২)
وَإِذَا رَأَوْهُمْ قَالُوا إِنَّ هَؤُلاءِ لَضَالُّونَ

ওয়া ইযা-রাআওহুম কা-লূইন্না হাউলাই লাদাললূন।
আর যখন তারা বিশ্বাসীদেরকে দেখত, তখন বলত, নিশ্চয় এরা বিভ্রান্ত।

(৩৩)
وَمَا أُرْسِلُوا عَلَيْهِمْ حَافِظِينَ

ওয়া মা উরছিলূ আলাইহিম হাফিজীন।
অথচ তারা বিশ্বাসীদের তত্ত্বাবধায়করূপে প্রেরিত হয়নি।

(৩৪)
فَالْيَوْمَ الَّذِينَ آمَنُوا مِنَ الْكُفَّارِ يَضْحَكُونَ

ফাল-ইয়াওমাল্লাযীনা আমানূ মিনাল কুফফারি ইয়াদহাকূন।
আজ যারা বিশ্বাসী, তারা কাফেরদেরকে উপহাস করছে।

(৩৫)
عَلَى الْأَرَائِكِ يَنْظُرُونَ
আলাল আরাইকি ইয়ানজু রূন।
সুসজ্জিত আসনে বসে, তাদেরকে অবলোকন করছে,

(৩৬)
هَلْ ثُوِّبَ الْكُفَّارُ مَا كَانُوا يَفْعَلُونَ
হাল ছুওব্বিাল কুফফা-রু মা-কা-নূইয়াফ‘আলূন।
কাফেররা যা করত, তার প্রতিফল পেয়েছে তো?

এ আয়াতগুলো থেকে যে শিক্ষা ও নির্দেশনা আমরা পাই:

১. আল্লাহর নেক বান্দাদের নিয়ে, আল্লাহর ইবাদত ও উত্তম কাজ নিয়ে হাসি-তামাশা করা, ঠাট্টা-বিদ্রূপ করা কাফেরদের স্বভাব। এ রকম কাজের জন্য আখেরাতে কঠিন শাস্তি ভোগ করতে হবে।

২. মক্কার মুশরিকরা মুসলমানদের বিভিন্নভাবে উৎপীড়ন করতো। মুসলমানদের নিয়ে হাসাহাসি করা, পরস্পরে চোখ টিপে বিদ্রুপ করা ছিলো মুসলমানদের মানসিকভাবে যন্ত্রণা দেওয়ার একটি পদ্ধতি।

৩. আখেরাতে মুমিনরা যখন জান্নাতের সুখময় জীবনে থাকবে, তারা মুশরিকদের জাহান্নামের কঠিন শাস্তির মধ্যে দেখে হাসবে যেমন তারা দুনিয়াতে মুমিনদের দেখে হাসতো।

৪. আখেরাতে আল্লাহ তার নেক ও অনুগত বান্দাদের পুরস্কৃত ও সম্মানিত করবেন, তার শত্রুদের অপদস্ত করবেন ও শাস্তি দেবেন।

ওএফএফ/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।