আমেরিকার ফ্লোরিডা ভার্সিটিতে হিজাবের পক্ষে কর্মসূচি


প্রকাশিত: ১০:১১ এএম, ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৭

ফ্লোরিডা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি আমেরিকার অন্যতম একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এ বিশ্ববিদ্যালয়ে একঝাঁক মুসলিম ছাত্র-ছাত্রী হিজাব পরিধানের পক্ষে সচেতনা বৃদ্ধিতে এক কর্মসূচি পালন করেছে।

ফ্লোরিডা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির মুসলিম স্টুডেন্টস এসোসিয়েশনের সদস্যরা ইসলামের প্রতি সচেতনা বৃদ্ধি লক্ষ্যে সপ্তাহব্যাপী অনেকগুলো ইভেন্টের আয়োজন করেছে। হিজাব কর্মসূচি এগুলো মধ্যে একটি। এ ইভেন্টের নামকরণ করা হয়েছে ‘হিজাব-১০১’ হিজাবের বাস্তব ও প্রকৃত সুবিধা অমুসলিমদের অবহিত করাই এ ইভেন্ট আয়োজনের একমাত্র লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য।

হিজাব ইভেন্ট প্রসঙ্গে অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি এবং বায়োমেডিকেল সায়েন্সের প্রধান মুনাজাহ বাগদাদির ভাষায়, ‘আমাদের পরিকল্পনার মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে- মানুষকে এ কথা বোঝানো যে, মুসলিম মেয়েরা মাথায় যে স্কার্ফ বা হিজাব পরিধান করে তা কখনোই নিপীড়নের প্রতীক নয়। বরং এটি নারীবাদের একটি প্রতীক।

কিছু কিছু মুসলিম হিজাব পরিধান করাকে নারীদের জন্য একটি ঐচ্ছিক বিষয় বলে মনে করেন। কিন্তু তা সঠিক নয়, বরং এ চিন্তা চেতনা ইসলামের মূল বিশ্বাসের পরিপন্থী বলে তিনি অভিহিত করেন।

গত ১০ ফেব্রুয়ারি (শুক্রবার) জুমার নামাজের পর থেকে ইসলামের প্রতি সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে এসোসিয়েশন হিজাব ইভেন্ট শুরু করে। সপ্তাহব্যাপী চলবে এ ইভেন্ট। প্রতিদিনই হিজাব পরিহিত শিক্ষার্থীরা অন্যসব মুসলিমদেরকে হিজাব পরিধানের প্রতি উদ্বুদ্ধ করবে।

হিজাব ইভেন্ট আয়োজন প্রসঙ্গে মুনাজাহ বাগদাদি বলেন, ‘আমাদের এই কর্মসূচি নতুন কিছু নয়। প্রতি বছরই আমরা এ রকম কর্মসূচি গ্রহণ করে থাকি। এর লক্ষ্যই হলো, হিজাব পরিধানে সচেতনতা বৃদ্ধি করা।

এমএমএস/পিআর