মুহাম্মাদ (সা.)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রচারে ফিলিস্তিনের প্রতিবাদ

ধর্ম ডেস্ক
ধর্ম ডেস্ক ধর্ম ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:০৭ এএম, ২৬ অক্টোবর ২০২০

যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশ ফিলিস্তিন। তাই বলে বিশ্বনবি মুহাম্মাদুর রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের প্রতি ভালোবাসার কমতি নেই। ভয় করেনি ক্ষমতাধর রাষ্ট্র ফ্রান্সকে। হজরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে নিয়ে ব্যঙ্গচিত্র প্রচার ও দেশটির সরকারি ভবনের সামনে তা টানানো নিয়ে প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ করেছে দেশটির মুসলমানরা। খবর আনাদোলু এজেন্সি।

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট অ্যামানুয়েল ম্যাক্রোর ঘৃণ্য ও ধৃষ্টতাপূর্ণ বক্তব্য কোটি কোটি মুসলমানের হৃদয়ে আঘাত করেছে। ইম্যানুয়েল ম্যাক্রোর ধৃষ্টতাপূর্ণ বক্তব্য ও ফরাসি পত্রিকা চার্লি এবদোতে প্রকাশিত ব্যঙ্গচিত্রের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে বিক্ষোভ করেছে ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যাকার মুসলমানরা।

ইসলাম ধর্ম ও রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহ ওয়া সাল্লামকে নিয়ে কটূক্তি করার প্রতিবাদে গত শনিবার (২৪ অক্টোবর) গাজা উপত্যাকার রাফাহ অঞ্চলে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করে হামাস সমর্থকরা।

প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ শেষে হামাসের শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তা জুময়াহ গুল বলেন, ‘ইসলাম ধর্ম ও বিশ্বনবিকে নিয়ে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইম্যানুয়েল ম্যাক্রোর ধৃষ্টতাপূর্ণ বক্তব্য ও ফরাসি পত্রিকা চার্লি এবদোতে প্রকাশিত ব্যঙ্গচিত্রের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ জানাই।

তিনি আরও বলেন, ‘ইসলাম ও মুসলিমদের প্রতি যেকোনো স্পর্ধা দেখানোর বিরুদ্ধে ফিলিস্তিনবাসী তীব্র নিন্দা জানায়। কেননা ইসলামের প্রতি বিদ্বেষ প্রকাশ করা এমন বক্তব্য চরম ঘৃণা ও বিদ্বেষ ছড়াতে সহায়তা করবে।’

তিনি বলেন, ‘ম্যাক্রোর আক্রমণাত্মক বক্তব্য মুসলিমদের অন্তরকে আঘাত করেছে। ফরাসি প্রেসিডেন্টের উচিত, নিজ বক্তব্য প্রত্যাহার করে ক্ষমা প্রার্থনা করা।’

এদিকে আরব বিশ্বের প্রায় অনেক দেশ ফ্রান্সের পণ্য বর্জনের আহ্বান জানিয়েছে। এশিয়া ইউরোপ ও আফ্রিকার অনেক দেশে চলছে প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ।

উল্লেখ্য, গত বুধবার (২২ অক্টোবর) ফরাসি প্রেসিডেন্ট অ্যামানুয়েল ম্যাক্রো এক সংবাদ সম্মেলনে তার ধৃষ্টতাপূর্ণ বক্তব্যে বলেন, ‘ফ্রান্স কখনো কার্টুন (রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের ব্যঙ্গচিত্র) আঁকা থেকে বিরত থাকবে না।’ তাঁর বক্তব্যের পর পুলিশের প্রহরায় প্যারিসের বড় বড় দালানের দেয়ালে দেয়ালে চার্লি এবদোতে প্রকাশিত ব্যঙ্গচিত্র রাতের বেলা টানিয়ে দেয়া হয়।

এমএমএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]