পুরুষ নির্যাতন দমন আইনের দাবি ফেসবুকে


প্রকাশিত: ০৯:২৪ এএম, ১১ জুলাই ২০১৬

এতদিন নারী দ্বারা পুরুষ নির্যাতনের বিভিন্ন খবর গণমাধ্যমের বদৌলতে সমানে এসেছে। যার প্রেক্ষিতে বিভিন্ন সময় এ সংক্রান্ত আইন করার দাবিও উঠে । তবে এখন এ দাবিটি আরো জোরালো হচ্ছে। এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনারও সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে।

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি ইভেন্ট খোলা হয়েছে। আর সেই ইভেন্টের প্রতি অনেকেই আগ্রহ দেখাচ্ছেন।
ওই ইভেন্টে বলা হয় ১৫ জুলাই শুক্রবার বিকেল ৪টায় জাতীয় প্রেসক্লাবে অবস্থান ধর্মঘট পালন করা হবে।

পোস্ট করা একটি ব্যানারে বলা হয়েছে, ‘বাংলাদেশের সংবিধানে নারী পুরুষের সমান অধিকার। নারী নির্যাতন দমন আইন আছে। পুরুষ নির্যাতন দমন আইন নাই। পুরুষ নির্যাতন দমন আইন চাই, নারী নির্যাতন দমন এবং যৌতুক আইনের সংশোধন চাই। এ উপলক্ষে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন ও গণস্বাক্ষরের আয়োজন করা হয়েছে। আপনারা সকলে আমন্ত্রিত।’

জানা যায়, নারায়ণগঞ্জ জেলার ভূঁইগড়ের অধিবাসী শেখ খায়রুল আলম (www.facebook.com/groups) এই ইভেন্টের উদ্যোক্তা। তিনি জাগো নিউজকে জানান, বিয়ে করার পর দীর্ঘদিন তিনি বউয়ের নির্যাতনের শিকার। এজন্য তাকে জেলও খাটতে হয়েছে। এখন শ্বশুর পক্ষ তার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করছে।

এজন্য তিনি অনেকবার এ সংক্রান্ত আইন করার জন্য প্রথমে সুপ্রিমকোর্টে ব্যানার নিয়ে অবস্থান নেন। কিন্তু সেখানকার বিচারপতিরা তাকে সংসদে গিয়ে এ বিষয়ে দাবি জানানোর পরামর্শ দেন। কারণ সংসদে আইন প্রণয়ন করা হয়। পরে তিনি কয়েকমাস আগে সংসদের সামনে মানিক মিয়া এভিনউয়ে ব্যানার নিয়ে অবস্থান করলেও কোনো কাজ হয়নি। এজন্য তিনি ফেসবুকে ইভেন্ট খুলে সবাইকে আমন্ত্রণ জানাচ্ছেন।

ওই ইভেন্ট থেকে সোমবার দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত ৫২৩ জনকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। এর মধ্যে ৪৭ জন সেখানে যাবেন বলে জানিয়েছেন। আর ৭১ জন এ বিষয়ে উৎসাহী। আগ্রহীরা এ বিষয়ে বিস্তারিত জানতে চাইলে উদ্যোক্তা খায়রুলের ০১৬৮১৪৭৪৬২৬ নম্বরে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।

এইচএস/এসকেডি/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]