‘ধর্মের’ দিকে আরও ঝুঁকবে বাংলাদেশের রাজনীতিও

সায়েম সাবু
সায়েম সাবু সায়েম সাবু , জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:১১ পিএম, ২৭ মে ২০১৯

ভারতের লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি’র নিরঙ্কুশ বিজয়ে বাংলাদেশ সরকার এবং রাজনৈতিক দলগুলো আরও ধর্মের দিকে ঝুঁকে পড়তে পারে বলে মন্তব্য করেছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষক আলতাফ পারভেজ।

আরও পড়ুন >> ৪৮ বছরের গণেশ উল্টে দিলেন মোদি

তিনি বলেন, বাংলাদেশের রাজনীতি এমনিতেই ক্রমাগতভাবে উগ্র জাতীয়তাবাদ আর ধর্মের দিকে ঝুঁকছে। ভারতে এবারের নির্বাচনী আয়োজন আর ফলাফল সেই ঝুঁকি আরও বাড়িয়ে দিয়েছে।

আলতাফ পারভেজ দক্ষিণ এশিয়ার রাজনৈতিক ইতিহাস নিয়ে গবেষণা করছেন। লিখছেন সমাজ, রাজনীতি, ইতিহাসের অন্যান্য প্রসঙ্গ নিয়েও। এর আগে ভারতের পার্লামেন্ট নির্বাচন নিয়ে মুখোমুখি হয়ে জাগো নিউজকে দীর্ঘ সাক্ষাৎকার দেন তিনি। সাক্ষাৎকারে প্রায় নিশ্চিত করেই বলেছিলেন, ‘ফলাফলে হেরফের হলেও নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে বিজেপি-ই ফের ক্ষমতায় আসবে।’

সেই আলোচনার একপর্যায়ে বলেছিলেন, ‘মোদির সফলতার গল্প মূল্যায়ন করতে হবে উপরিতল থেকে। বিশ্ব রাজনীতিতে ভারত এখন আঞ্চলিক মুরুব্বি। বিশ্বের বৃহৎ গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র ভারতে এখন রাজনৈতিকভাবেই জাতীয়তাবাদের বিস্তার ঘটছে। এ কারণেই গণমানুষের স্বার্থসংশ্লিষ্ট ইস্যুগুলো নির্বাচনে চাপা পড়ছে ভারত-পাকিস্তানের মধ্যকার যুদ্ধের খবরে। যার পেছনে রয়েছে পুঁজির কর্তৃত্ব।’

আরও পড়ুন >> ‘মুসলিমরা বিজেপির চোখে মানুষ নয়’

‘কিন্তু ভারতের ভেতর থেকে দেখলে আলাদাভাবে মূল্যায়ন করতে হয়। ভারতে পৃথিবীর সবচেয়ে বেশিসংখ্যক দরিদ্র মানুষ বসবাস করছে। মুম্বাই, গুজরাটের পাশাপাশি বিহার, উড়িষ্যার মতো অনুন্নত রাজ্যও আছে। ভারতে আদিবাসীদের অবস্থা খুবই খারাপ। ভারতে এখনও বন্যঘৃণা রয়ে গেছে। অচ্ছুত সংস্কৃতি আছে। দলিতদের পিটিয়ে মারা হচ্ছে। গরু রক্ষার নামে মুসলিমদের হত্যা করা হচ্ছে। গোমূত্র নিয়ে রাজনীতি হচ্ছে সেখানে।‘

‘ভারতে কৃষকরা খুবই বঞ্চনার শিকার’ উল্লেখ করে তিনি আরও বলেছিলেন, ‘দলিত ও মুসলিমরা বঞ্চনার শিকার। মূলত এগুলোই হওয়ার কথা ছিল ভারতীয় রাজনীতি, নির্বাচনের ইস্যু। অথচ পাঁচটি সাবমেরিন কিনেছে কি-না, পারমাণবিক অস্ত্র আছে কি-না, অত্যাধুনিক বিমান কিনছে কি-না, এসবই এখন ভারতের নির্বাচনের ইস্যু।’

নির্বাচনের ফলাফল নিয়ে জাগো নিউজ-এর কাছে দেয়া প্রতিক্রিয়ায় আলতাফ পারভেজ বলেন, ‘ভারতের নির্বাচনে বিজেপি যে আসছে, সে খবর আমরা আগে থেকেই পাচ্ছিলাম নানা বিশ্লেষণের মাধ্যমে। কিন্তু এমন ফলাফল হতে পারে, তা হয়তো অনেকেরই ধারণা ছিল না। তার মানে, ভারতের রাজনীতিতে ধর্ম আর জাতীয়তাবাদ খুবই গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠছে। দেশটিতে বিভাজন আরও বাড়াবে।’

আরও পড়ুন >> ভারতের নির্বাচনে বাংলাদেশ সম্পর্কের হেরফের হবে না

ভারত আর দক্ষিণ এশিয়ার প্রসঙ্গ টেনে তিনি আরও বলেন, ‘ভারত কোনো না কোনোভাবেই কর্তৃত্ব বাড়াতে চাইবে। এ নির্বাচন তার-ই ইঙ্গিত দিয়েছে। এতে অন্য দেশগুলোর রাজনীতিও এখন ধর্ম আর জাতীয়তাবাদের শক্তি দ্বারা প্রভাবিত হবে। এমনকি বাংলাদেশ সরকার এবং এখনকার রাজনৈতিক দলগুলোও ধর্মের দিকে বেশি ঝুঁকবে।’

প্রসঙ্গত, বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ লোকসভা নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয়লাভ করে। ৫৪৫টি আসনের মধ্যে ৩৫২টি পায় বিজেপি।

এএসএস/এমএআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]