সৌম্যর পর বিদায় নিলেন আফিফও

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:১০ পিএম, ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে দারুণ সূচনা এনে দিয়েছিলেন সৌম্য সরকার এবং জাকির হাসান। যদিও চতুর্থ ওভারের শেষ বলে দলীয় ৪৯ রানের মাথায় ব্যক্তিগত ১০ রানে বোল্ড হয়ে যান জাকির হাসান। তবে, উইকেটে টিকে থেকে লঙ্কান বোলার এবং ফিল্ডারদের গায়ের ঘাম ছুটিয়ে দেন সৌম্য সরকার। ওয়ানডে এবং টেস্ট দলে উপেক্ষিত থাকার জবাবটা তিনি দিলেন ব্যাট হাতেই। দুর্দান্ত এক হাফ সেঞ্চুরি তুলে নিয়ে।

ক্যারিয়ারে প্রথম টি-টোয়েন্টি হাফ সেঞ্চুরির দেখা পেলেন সৌম্য। কিন্তু কী দুর্ভাগ্য সৌম্যর। দুর্ভাগ্য বাংলাদেশেরও। হাফ সেঞ্চুরি পূরণ করার পরের ওভারেই জীবন মেন্ডিসকে আক্রমণে নিয়ে আসেন লঙ্কান অধিনায়ক চান্ডিমাল। এসেই প্রথম বলে তিনি তুলে নিলেন সৌম্য সরকারকে। অপরিণামদর্শী একটি রিভার্সসুইপ খেলতে গেলেন সৌম্য। স্লো এবং লো বলে ব্যাটে-বলেই করতে পারলেন না। পুরোপুরি পরাস্ত। বল গিয়ে আঘাত হাতে তার উরুতে।

সুইপ করতে না পারার কারণে গোড়ালির ওপর রেখে পুরো শরীরটাই ঘুরে গিয়েছিল। সম্ভবত মাশলে টান লেগেছে। যার ফলে মাটিতেই পড়ে যান তিনি। অন্যদিকে আউটের আঙ্গুলও তুলে দেন আম্পায়ার। অযথা রিভার্সসুইপ খেলতে যাওয়ার মূল্যটা শুধু উইকেট বিলিয়েই দিতে হলো না, সঙ্গে ইনজুরির কবলেও পড়তে হলো সৌম্যকে। সে সঙ্গে ইনজুরির তালিকা কেবল লম্বাই হচ্ছে বাংলাদেশের। সাকিবের পর, তামিম-মুশফিক। মুশফিক খেলতে পারলেও তামিম পারছেন না। এবার সেখানে যোগ হলেন সৌম্য।

সৌম্য আউট হওয়ার পর মাঠে নামলেন অভিষিক্ত তরুণ ক্রিকেটার আফিফ হোসেন ধ্রুব। কিন্তু এ তরুণতুর্কীও পুরোপুরি ব্যর্থ। এক বল মোকাবেলা করলেন জীবন মেন্ডিসকে। পরের বলেই লেগ স্ট্যাম্পের ওপর বল ছিল, সেটা আফিফের উরুর স্পর্শ নিয়ে গিয়ে পড়ে ব্যাটের ওপর। বল ব্যাট ছুঁয়ে মাটিতে পড়ার আগেই নিরোশান ডিকভেলা ঝাঁপিয়ে পড়ে ক্যাচটি নিয়ে নিলেন। কোনো রান না করেই ফিরে গেলেন আফিফ হোসেন।

এর আগে ইনজুরির কারণে খেলতে পারছেন না তামিম ইকবাল। বাংলাদেশের ব্যাটিংয়ের কী হবে! এ সংশয়ের দোলাচলে দুলতে দুলতে ম্যাচও শুরু হয়ে গেছে বাংলাদেশের। অবশেষে ওপেনিং নিয়ে দুশ্চিন্তায় ছিলেন যারা, তাদের মধ্যে স্বস্তি ফেরাতে পেরেছেন বাংলাদেশের দুই ওপেনার সৌম্য সরকার এবং জাকির হাসান। তামিমের পরিবর্তে অভিষেক ঘটে তরুণতুর্কী জাকির হাসানের। বিপিএলে রাজশাহী কিংসের হয়ে কয়েকটা ম্যাচে দারুণ ব্যাটিং করেছিলেন এ তরুণ। যার মূল্য পেলেন আজ এবং শুরুতে সৌম্য সরকারের সঙ্গে দারুণ একটি জুটি গড়ার চেষ্টা করছেন তিনি।

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশকে শুভ সূচনাই এনে দিয়েছেন দুই ওপেনার জাকির হাসান এবং সৌম্য সরকার। তবে জাকির হাসানের তুলনায় লঙ্কান বোলারদের ওপর বেশি নির্দয় সৌম্য সরকার। লঙ্কান পেসার সেহান মধুশঙ্কা, দানুশকা গুনাথিলাকা এবং ইসুরু উদানার বোলিংকে একের ওপর এক মাঠের বাইরে পাঠাতে শুরু করেন তারা।

তবে, উড়ন্ত সূচনা এনে দিলেও চতুর্থ ওভারের শেষ বলে এসে উইকেট হারালেন জাকির হাসান। ৯ বলে ১০ রান করে গুনাথিলাকার বলে বোল্ড হয়ে গেলেন বাংলাদেশের অভিষিক্ত এ ওপেনার।

এ রিপোর্ট লেখার সময় বাংলাদেশের রান ১২.২ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ১২০। ২৫ বলে ৩৩ রান নিয়ে ব্যাট করছেন মুশফিক এবং ১৩ রান নিয়ে ব্যাট করছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

বাংলাদেশের একাদশ

জাকির হাসান, সৌম্য সরকার, মুশফিকুর রহীম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সাব্বির রহমান, আফিফ হোসেন ধ্রুব, আরিফুল হক, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, নাজমুল অপু, মোস্তাফিজুর রহমান ও রুবেল হোসেন।

শ্রীলঙ্কার একাদশ

নিরোশান ডিকভেলা, উপুল থারাঙ্গা, দিনেশ চান্ডিমাল, কুশল মেন্ডিস, জীবন মেন্ডিস, দানুশকা গুনাথিলাকা, থিসারা পেরেরা, দাসুন শানাকা, আকিলা ধনঞ্জয়া ও মধুশঙ্কা, ইসুরু উদানা।

আইএইচএস/আইআই

আপনার মতামত লিখুন :