তামিম এখনো অনিশ্চিত, আরিফুল, আফিফ আর অপুর অভিষেক!

আরিফুর রহমান বাবু
আরিফুর রহমান বাবু , বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০২:০১ পিএম, ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮
তামিম এখনো অনিশ্চিত, আরিফুল, আফিফ আর অপুর অভিষেক!

হোক তা টেস্ট, ওয়ানডে কিংবা টি টোয়েন্টি; বাঁ-হাতি স্পিনার ছাড়া বাংলাদেশ দলকে দেখেছেন কবে? মনে করা কঠিন। ২০০০ সালের নভেম্বরে পুরোদস্তুর টেস্ট খেলিয়ে দল হবার পর দেড়যুগে আদৌ এমন ঘটনা যে ঘটেইনি। মনে হচ্ছিল ১৫ ফেব্রুয়ারি শেরে বাংলায় সে ধারার অবসান ঘটতে যাচ্ছে। স্মরণাতীতকালের মধ্যে প্রথম বাঁ-হাতি স্পিনার ছাড়া মাঠে নামবে টাইগাররা।

কিন্তু নাহ, শেষ পর্যন্ত বাঁ-হাতি স্পিনার খেলানোর ধারা অব্যাহত থাকছে। আজ পড়ন্ত বিকেলে শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশ স্কোয়াডে আছেন এক বাঁ-হাতি স্পিনার। বলার অপেক্ষা রাখে না, তিনি আর কেউ নন, বাঁ-হাতের কনিষ্ঠা আঙুলে ইনজুরির কারণে এ সিরিজ খেলতে না পারা সাকিবের জায়গায় শেষ মুহূর্তে দলে আসা নাজমুল ইসলাম অপুই হচ্ছেন সেই বাঁ-হাতি স্পিনার। আজ তার অভিষেক ঘটছে।

এদিকে বাঁ-হাতি নাজমুল ইসলাম অপুর সঙ্গে আরও দুই তুর্কি তরুণ আফিফ হোসেন ধ্রুব আর আরিফুল হকের অভিষেকও শতভাগ নিশ্চিত। এই তরুণকে আজ লাল সবুজ জার্সি গায়ে খেলতে দেখা যাবে।

এর আগে শোনা যাচ্ছিল নাজমুল অপু নন, বিপিএলে নজর কাড়া আরেক অফ-স্পিনার মেহেদির কথা। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের হয়ে নজর কাড়া এ তরুণকে খেলানোর কথাও ভাবা হচ্ছিল। কিন্তু শেষ মুহূর্তে সে প্ল্যান বদল হয়েছে। অফ-স্পিনার কোটায় আাফিফ হোসেন ধ্রুব আর অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহকে ধরা হয়েছে। বলার অপেক্ষা রাখে না, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ বিপিএলে নিয়মিত বল করেন।

গত দুই বিপিএলে শেষ চারে জায়গা করে নেয়া খুলনা টাইটান্স অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ মিডল অর্ডারে ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি অফস্পিন বোলিংটাও নিয়মিত করেছেন। বল হাতে সাফল্যও পেয়েছেন। তাই অফ-স্পিনার মাহমুদউল্লাহতেই আস্থা টিম ম্যানেজমেন্টের। সে কারণেই আাফিফ হোসেন ধ্রুবকে রেখে মেহেদিকে বাইরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সেখানে বাঁ-হাতি নাজমুল অপুর অন্তর্ভুক্তি ঘটিয়ে স্পিন ডিপার্টমেন্টে বৈচিত্র আনা হয়েছে।

এদিকে যত সংশয় ছিল তামিম ইকবাল ও মুশফিকুর রহীমকে নিয়ে। এক নম্বর ওপেনার তামিম আর মিডল অর্ডার ব্যাটিংয়ের স্তম্ভ মুশফিক কি খেলতে পারবেন? এ কৌতুহলি প্রশ্ন এখন প্রতিটি বাংলাদেশ সমর্থকের। শেষ খবর, সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে খেলবেন মুশফিকুর রহীম।

টিম ম্যানেজমেন্টের ঘনিষ্ট সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। সূত্র জানিয়েছে আজ সকালে ফিটনেস টেস্টে উত্তীর্ণ হয়েছেন মুশফিকুর রহীম। তাই তাকে খেলানো হবে। এখন চিন্তা ও সংশয় তামিম ইকবালকে নিয়ে। বাহুর মাশলে টান পড়া তামিম খেলতে পারবেন না, সকাল থেকে এমনটাই ধরে নেয়া হয়েছিল। কিন্তু দুপুরে তামিম নিজে থেকেই নাকি খেলার ব্যাপারে আশা প্রকাশ করেছেন।

জানা গেছে, তামিমকে বাইরে রেখে ১২ জনের দল চূড়ান্ত করা হয়েছিল। যেখানে তামিম ছাড়াও ছিল না দুই পেসার আবু হায়দার রনি, আবু জায়েদ রাহী, মোহাম্মদ মিঠুন আর অফ-স্পিনার মেহেদি হাসানের নাম।

এর মধ্যে পেসার রনি, রাহী আর অফ-স্পিনার মেহেদি, এই তিনজন ঠিকই বাইরে থাকবেন। তাদের আজকের ম্যাচ খেলার সম্ভাবনা শূন্যের কোঠায়। তবে তামিম খেলবেন কি খেলবেন না? তা জানা যাবে টিম হোটেল থেকে দল মাঠে যাবার পর।

বৃহস্পতিবার বিকেলে দল শেরে বাংলায় যাবার পর মাঠে গিয়ে ব্যাটিং করে দেখবেন তামিম। কোন রকম অস্বস্তি বোধ করলে খেলবেন না দেশসেরা ওপেনার। আর সমস্যা না হলে খেলবেন। এরকম অবস্থায় তামিম ইস্যু ঝুলে আছে। তামিমের ওপর নির্ভর করছে তরুণ জাকিরের খেলা না খেলা। তামিম না খেললে জাকির একাদশে ঢুকে যাবেন। আর তামিম খেললে তার আর জায়গা হবে না।

একইভাবে মুশফিককেও মাঠে গিয়ে আরও একবার পরীক্ষা করে দেখা হবে। যেহেতু টিম কম্বিনেশন ও সম্ভাব্য একাদশে মিঠুনও নেই। তাই মুশফিকের বিকল্প হিসেবে মোহাম্মদ মিঠুনকেও তৈরি থাকতে বলা হয়েছে। মুশফিক মাঠে গিয়ে অস্বস্তি বোধ করলে তার জায়গা নেবেন ব্যাটসম্যান কাম কিপার মোহাম্মদ মিঠুন।

তাই শেষ মুহুর্তে বাঁ-হাতি স্পিনার নাজমুলকে নিয়ে সাজানো টাইগার একাদশে দুই জেনুইন স্পিনারের পাশাপাশি সিমিং অলরাউন্ডার সাইফউদ্দিনকে ধরে তিন পেসার নিয়ে মাঠে নামার সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত। তাহলে আজকের খেলায় মাহমুদউল্লাহ বাহিনীর সম্ভাব্য লাইন আপ এমন

তামিম ইকবাল/ জাকির হোসেন, সৌম্য সরকার, মুশফিকুর রহীম/ মোহাম্মদ মিঠুন, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সাব্বির রহমান, আফিফ হোসেন, আরিফুল হক, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, নাজমুল অপু, মোস্তাফিজুর রহমান ও রুবেল হোসেন।

এআরবি/এমআর/পিআর