দেড় বছরেই এত পরিবর্তন সাকিব-তামিম জুটির!

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:৪১ পিএম, ২৩ জুলাই ২০১৮

বাংলাদেশ ক্রিকেট ইতিহাসের ব্যাটিংয়ের প্রায় সব রেকর্ড নিজেদের দখলে রেখেছেন সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবাল। পরিসংখ্যানের দিক থেকে নিঃসন্দেহে দেশের ইতিহাসের সেরা ক্রিকেটারও এই দুজন। অথচ যখনই প্রসঙ্গ আসতো এই দুজনের জুটি গড়ার তখনই কেমন যেন নিষ্প্রভ দেখা যেত সব পরিসংখ্যান।

দেশের ইতিহাসের সেরার তকমা রয়েছে যাদের গায়ে, তারা কি আর সহসাই এই নিষ্প্রভতা মেনে নেয়ার পাত্র! প্রথম ১০ বছরে জুটি গড়ে ওয়ানডে ক্রিকেটে যাদের ছিল না একটিও শতরানের জুটি, সেই সাকিব-তামিমই ২০১৭ সালের শুরু থেকে এখনো পর্যন্ত মাত্র দেড় বছরেই গড়েছেন তিন-তিনটি একশো ছাড়ানো পার্টনারশিপ।

২০০৭ সালে ওয়ানডে ক্রিকেটে তামিম ইকবালের অভিষেকের পর সাকিব আল হাসানের সাথে জুটি গড়েছেন মোট ৩১ বার। এর মধ্যে ২০১৬ সাল পর্যন্ত প্রিয় বন্ধুর সাথে একত্রে ২৩টি ইনিংসে খেলার সুযোগ পেয়েছেন তামিম। এই ২৩ ইনিংসে সবমিলিয়ে ৬৬৫ রান যোগ করতে পেরেছিল সাকিব-তামিম জুটি। জুটির গড় রান মাত্র ৩০.২৩।

অথচ ২০১৭ সালের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত মাত্র দেড় বছরে ৮টি ইনিংসে জুটি গড়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের অন্যতম সেরা এই দুই ক্রিকেটার। এই ৮ ইনিংসে এই জুটির মোট রান ৭৩৬। গড় হিসেব করলে দাঁড়ায় প্রতি ইনিংসে ৯২ রান। শুধু তাই নয় এই দেড় বছরে ৩টি শতরানের জুটি ছাড়া আরো ৩টি অর্ধশতরানের জুটিও গড়েছেন সাকিব ও তামিম।

প্রথম ১০ বছরে মাত্র ৬৬৫ রান যোগ করা এই জুটি গত দেড় বছরেই করেছে ৭৩৬ রান। এই জুটির এতো পরিবর্তনের অবশ্য যৌক্তিক কারণও রয়েছে। ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে ধুমধারাক্কা ব্যাটিং করায় বেশিক্ষণ উইকেটে টিকে থাকতে পারতেন না তামিম ইকবাল। যার ফলে পাঁচ-ছয় নম্বরে নামা সাকিব আল হাসানও জুটি হিসেবে খুব বেশি পাননি বন্ধু তামিমকে।

দশ বছরে যে ২৩টি ইনিংসে সাকিব পেয়েছেন তামিম তার বেশিরভাগ ইনিংসেই দেখা গিয়েছে সাকিব উইকেটে সেট হওয়ার আগেই সাজঘরের পথ ধরেছেন তামিম। যার ফলে লম্বা হয়নি জুটি। কিন্তু ২০১৭ সাল বা চলতি বছরে নিয়মিতই তিন বা চার নম্বরে ব্যাট করছেন সাকিব।

অন্যদিকে তামিম ইকবালও নজর দিয়েছেন ধীরে সুস্থে বেশিক্ষণ উইকেটে টিকে থাকার দিকে। যার ফলে বাংলাদেশ দলের বড় সংগ্রহের ভীত গড়ে দেয়ার যে কাজটা তা দারুণ ভাবেই সামাল দিতে পারছে সাকিব-তামিম জুটি। যার প্রমাণও মিলেছে সাকিব-তামিমের দেড় বছরে গড়া ৮টি জুটিতে। এই ৮ ইনিংসে সাকিব-তামিমের জুটির রানগুলো হলো যথাক্রমে ১৪৪, ২৩, ৬৯, ৭৮, ৯৯, ১০৬, ১০ ও ২০৭।

সাকিব আল হাসান উপরের দিকে ব্যাট করলে কিংবা তামিম ইকবাল শুরুতে খানিক রয়ে-সয়ে ইনিংস শুরু করলে বাংলাদেশ দলের যে উপকারটা হয় সেটিও বুঝা যায় দুজনের জুটির এই দেড় বছরের পরিসংখ্যানের মাধ্যমেই।

এসএএস/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :