‘বাংলাদেশেরও বড় ছক্কা হাঁকানোর ব্যাটসম্যান আছে’

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা সিলেট থেকে
প্রকাশিত: ০৩:৩২ পিএম, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮

টেস্ট সিরিজে ক্লিন সুইপ আর ওয়ানডে সিরিজে ২-১ ব্যবধানে জেতার পর বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সামনে এখন মিশন টি-টোয়েন্টি সিরিজের। মাস চারেক আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটি থেকে তিন ম্যাচের ট-টোয়েন্টি সিরিজটি ২-১ ব্যবধানে জিতে এসেছিল সাকিব আল হাসানের দল।

জুন-জুলাইয়ের ক্যারিবীয় সফরে টেস্ট সিরিজে ধবলধোলাই হয়েছিল বাংলাদেশ। ঘুরে দাঁড়িয়ে ওয়ানডে সিরিজ জিতেছিল বাংলাদেশ, পরে টি-টোয়েন্টি সিরিজটিও নিজের করে নেয় টাইগাররা।

আর ফিরতি সিরিজে ওয়ানডে সিরিজ তো জিতেছেই, এর আগে টেস্ট সিরিজটিও সহজেই জিতেছে বাংলাদেশ। যে কারণে সোমবার থেকে শুরু হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি সিরিজ শুরুর আগে নিশ্চিতভাবেই এগিয়ে থাকবে বাংলাদেশ।

কিন্তু ঠিক এমনভাবে ভাবতে রাজি নন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের প্রধান কোচ স্টিভ রোডস। টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ভয়ঙ্কর দল হওয়ায় তিনি সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন তার দলকে। তবে সিরিজটি জিততে পারলে তা দলের জন্য বড় অর্জন হবে বলে মনে করেন রোডস।

ম্যাচের আগের দিন আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে রোডস বলেন, ‘আমরা ওয়ানডে, টেস্ট সিরিজ জিতেছি ঠিক আছে। তবে আমাদের মনে রাখতে হবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ টি-টোয়েন্টি বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন। আমরা নিজেদের সেরাটা দিতে উন্মুখ হয়ে আছি। আমরা তেড়েফুঁড়ে জয়ের জন্য চেষ্টা করবো। তারা এই ফরম্যাটে অনেক বড় দল। আমরা জিততে চাই। জিততে পারলে অনেক বড় একটা প্রাপ্তি হবে।’

ওয়ানডে ফরম্যাটে অনেকদিন ধরেই ভালো খেলছে বাংলাদেশ দল। টেস্ট ফরম্যাটেও ঘরের মাঠে ভালো খেলা শুরু করেছে টাইগাররা। সে তুলনায় টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটেই বরং পিছিয়ে সাকিব আল হাসানের দল? এর কারণ কি হতে পারে?

এমন প্রশ্নের জবাবে রোডস বলেন, ‘আমি যখন প্রথম এলাম তখন দলের খেলোয়াড়দের পাওয়ার হিটিং ও শারীরিক শক্তিতে ঘাটতি লক্ষ্য করেছিলাম। আমাদের দলের খেলোয়াড়রা ক্যারিবীয়দের মতো শক্ত-সামর্থ্য নয়। তবে আশার কথা হলো এই দলে বেশ কয়েকজন আছে যারা বড় শট খেলতে পারে। আশা করি তারা নিজেদের সেরাটা মাঠে দিতে পারবে।’

এআরবি/এসএএস/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :