ভালো ক্রিকেট খেলা নিয়েই চিন্তায় আফতাব

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৮:০৭ পিএম, ২০ এপ্রিল ২০১৯

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের টেবিলে ২ পয়েন্ট এগিয়ে রয়েছে লিজেন্ডন অব রুপগঞ্জ। আফতাব আহমেদের অভিভাবকত্বে খেলছে এই দলটি। রোববার বিকেএসপিতে আরেক শিরোপা প্রত্যাশী আবাহনীর মুখোমুখি হচ্ছে তারা। এই ম্যাচেই অনেকটা নির্ধারণ হয়ে যাবে, এবারের লিগের ভাগ্য।

এমন এক গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচের আগে লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ কোচ আফতাব আহমদ কিন্তু আবাহনীকে নিয়ে চিন্তিত নন। তার একমাত্র চিন্তাই হচ্ছে ভালো খেলা। যেভাবে এতদিন তারা খেলে এসেছেন, সেভাবেই এই ম্যাচে খেলতে চান তারা।

আফতাব আহমদের কাছে জানতে চাওয়া হয় আবাহনীকে নিয়ে তার চিন্তা-ভাবনা কি? জবাবে তিনি বলেন, ‘আবাহনী তো নিঃসন্দেহে একটা ভালো দল। সবকিছু মিলিয়ে যদি আপনি চিন্তা করেন তাহলে দেখবেন আমাদের দল অনেক ভালো ক্রিকেট খেলছে। সুতরাং আমাদের কে খেলছে কিংবা কে খেলছে না সেটি নিয়ে চিন্তা নয়। আমাদের চিন্তা হলো কালকে কিভাবে ভালো ক্রিকেট খেলবো। আমরা যেভাবে ভালো ক্রিকেট খেলে এসেছি যদি সেভাবে আমরা ক্রিকেট খেলতে পারি তাহলে আমাদের খুব একটা পার্থক্য হবে না ইনশাল্লাহ।’

সময়ের সেরা দুই দলের ম্যাচ। এই ম্যাচটি মিরপুরে না দিয়ে দেয়া হয়েছে বিকেএসপিতে। এ নিয়ে ক্রিকেটপাড়ায় গুঞ্জন। অতীতের অভিজ্ঞতা সময়ই তিক্ত। এ কারণেই আফতাবের কাছে মিরপুরের বাইরে ম্যাচ নিয়ে জানতে চাওয়া হয়। তিনিও জানিয়েছেন যে, তারা আশা করেছিলেন মিরপুরেই ম্যাচ হবে।

আফতাব বলেন, ‘অবশ্যই আশা করেছিলাম যেহেতু আমরা এক নম্বর দল হিসেবে উঠেছি তখন মিরপুরে একটু বেশি ম্যাচ পাবো। তবে আমি জানি না আসলে...। এটা ওনারাই চিন্তা করবে, এটা ওনাদের বিষয়। এটা ওনারা কিভাবে দেখছেন এবং তারা যেখানে দেয় সেখানেই আমরা খেলতে বাধ্য।’

আবহানীর চেয়ে দুই পয়েন্ট এগিয়ে রূপগঞ্জ। বিষয়টাকে কি সুবিধাজনক হিসেবে দেখছেন রূপগঞ্জের কোচ? আফতাব আহমদ বলেন, ‘আমি আপনাকে প্রথম থেকেই একটা কথা বললাম যে, আলহামদুলিল্লাহ আমরা অনেক রিল্যাক্স। আমাদের কোনও চাপ কাজ করছে না। কারণ আমরা এখন পর্যন্ত যা ফলাফল করেছি আলহামদুলিল্লাহ। আমাদের দুই পয়েন্ট করে লক্ষ্য। আর সেভাবেই যাবো। আর প্রতিপক্ষ দলের ব্যাপারটি আমি বলতে পারবো না। ওনারা কতটুকু কিভাবে আছেন সেটি ওনারাই ভালো বলতে পারবেন।’

অতীতের অভিজ্ঞতার আলোকেই রূপগঞ্জ কোচের কাছে প্রশ্ন, আবাহনীর বিপক্ষে এই ম্যাচের আগে বাইরের কোনও চাপ তৈরি হয়েছে কি না? আফতাব বলেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ, আমরা এখন পর্যন্ত তেমন কিছুর মুখোমুখি হইনি। সবকিছু শতভাগ অনেস্টলি হচ্ছে। আর সবকিছু খুব ভালো হচ্ছে। আমরা আশা করবো এই ম্যাচটিও আমরা ভালোভাবে শেষ করতে পারবো।’

আবাহনীর মত দলের বিক্ষে খেলা, কোনো টেনশন কাজ করছে কি না? জানতে চাইলে আফতাব বলেন, ‘আপনি যদি এমনটা চিন্তা করেন তাহলে..., দেখুন আমরা কিন্তু প্রথম ম্যাচটি মাশাল্লাহ ভালোভাবেই জিতেছি (আবাহনীকে মৌসুমের প্রথম ম্যাচে হারিয়েছে রূপগঞ্জ)। যেটি আমি প্রথমেই বললাম যে আমরা কোনও ম্যাচই ম্যাচ হিসেবে নিচ্ছি না। আমাদের লক্ষ্য এবং স্লোগানই একটি যে, আমরা দুই পয়েন্ট নিয়ে এগোবো। আমরা প্রতিপক্ষ দলকে ফলো করছি না। টেবিলের যে দুই পয়েন্ট আছে সেটিতে গুরুত্ব দিচ্ছি।’

মাঠের বাইরে অনেক বিতর্ক তৈরি হয়। সে সব বিতর্ক নিয়ে আফতাব বলেন, ‘চাপ তো থাকবেই। বড় দলের বিপক্ষে খেলতে গেলে চাপ তো থাকেই। তবে এটি আমার খেলোয়াড়দের বুঝতে দিতে চাই না। আমরা চেষ্টা করি ক্রিকেটারদের যত রিল্যাক্স রাখা যায়। অফিসিয়াল লেভেল থেকে হয়তো কোনও চাপ তৈরি করতে পারে, তবে আমি নিজে সবসময় চেষ্টা করি যেন খেলোয়াড়দের মাঝে এমন কোনও চাপ তৈরি না হয়।’

এবারের লিগে আম্পায়ারিং নিয়ে কোনো প্রশ্ন উঠেছে কি না? আফতাব বলেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ, আম্পায়ারিং অনেক ভালো হচ্ছে এবার। আমি এখনও তেমন কিছু দেখিনি। আশা করি শেষ যে দুই ম্যাচ আছে, সেখানেও ভালো কিছু দেখবো ইনশাল্লাহ।’

এআরবি/আইএইচএস/এমএস