ছক্কা মেরে টানা দ্বিতীয় সেঞ্চুরি সৌম্যর

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:১৬ পিএম, ২৩ এপ্রিল ২০১৯

সৌম্য সরকারের ব্যাপারে প্রায়ই শোনা যায় একটি কথা, সেটি হলো- তিনি বড় ম্যাচের খেলোয়াড়, গুরুত্বপূর্ণ সময়ে জ্বলে উঠতে পারেন। এই কথাটির প্রমাণ আরও একবার দিলেন সাতক্ষীরার বাঁহাতি এ ব্যাটসম্যান।

চলতি ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে আবাহনী লিমিটেডের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সময়ে পরপর দুই ম্যাচে দুইটি ঝড়ো সেঞ্চুরি হাঁকালেন সৌম্য। আগের ম্যাচে লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জের বিপক্ষে ৭১ বলে সেঞ্চুরি করার পর আজ শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের বিপক্ষে ৭৮ বলে করলেন লিস্ট 'এ' ক্যারিয়ারের ষষ্ঠ সেঞ্চুরি।

নিজেদের শিরোপা ধরে রাখতে আজ হারাতেই হবে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবকে। তানবীর হায়দারের ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরিতে করা ১৩২ রানের অপরাজিত ইনিংসে ভর করে শেখ জামালের সংগ্রহ পৌঁছায় ৩১৭ রানে। জিততে হলে আবাহনীর লক্ষ্য দাঁড়ায় ৩১৮!

বড় লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে উদ্বোধনী জুটিতেই জয়ের পথে এগিয়ে যাচ্ছে আবাহনী। যার বড় কৃতিত্ব ২৬ বছর বয়সী সৌম্যর। উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান জহুরুল ইসলামকে নিয়ে উদ্বোধনী জুটিতে এখনো পর্যন্ত ২৯ ওভারে ২০৩ রান করে ফেলেছেন সৌম্য।

সেঞ্চুরিটি মাত্র ৭৮ বলে করলেও ইনিংসের শুরুটা বেশ দেখেশুনে করেছেন তিনি। প্রথম ৪০ রান করতে নেননি কোনো ঝুঁকি, খেলেছেন সোজা ব্যাটে, মাথা নিচু রেখে। এরপরই দেখা মেলে তার রুদ্রমূর্তির। ফিফটি করতে ৫২ বল খেলেন সৌম্য।

এরপর পঞ্চাশ থেকে একশতে যেতে খরচ করেন মাত্র ২৬টি বল। ব্যক্তিগত ৯০ রানের মাথায় তাইজুল ইসলামের বোলিংয়ে লংঅন সীমানায় জীবন পান। তবু দমে না গিয়ে পরপর দুই বলে ৪ ও ৬ মেরে টানা দ্বিতীয় সেঞ্চুরি পূরণ করেন সৌম্য। ৭৮ বলে ৮টি করে চার ও ছক্কার মারে সেঞ্চুরিটি করেন তিনি।

সেঞ্চুরি তুলে নেয়ার পর ইনিংসের সবচেয়ে বড় ঝড়টা তিনি বইয়ে লেগস্পিনার মিনহাজুল আবেদিন আফ্রিদির ওপর। তিন ছক্কায় ২৫ রান তুলে নেন সৌম্য। পরের ওভারেই তাইজুল ইসলামকে ছক্কা মেরে লিস্ট 'এ' ক্রিকেটের এক ইনিংসে বাংলাদেশের পক্ষে সর্বোচ্চ ১২ ছক্কার রেকর্ড নিজের করেন সৌম্য।

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ২৯ ওভার শেষে আবাহনীর সংগ্রহ বিনা উইকেটে ২০৩ রান। মাত্র ৯৫ বলে ১২৯ রানে খেলছেন সৌম্য। অপরপ্রান্তে জহুরুলের সংগ্রহ ৮৩ বলে ৬৯ রান।

এসএএস/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :