দুঃখের পর শাহজাদ পেলেন আনন্দের সংবাদ

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:২৯ পিএম, ১৪ জুন ২০১৯

সময়টা ভালো কাটছে না মোহাম্মদ শাহজাদের। বিশ্বকাপ দল থেকে বাদ পড়ে ফাঁস করেছেন বিস্ফোরক এক তথ্য। তাকে নাকি জোর করে বাদ দেয়া হয়েছে, কান্নাভেজা চোখে জানিয়েছিলেন এমনটাই। দুঃখ ভারাক্রান্ত হৃদয় নিয়েই ফিরেছেন দেশে। তবে সেখানে ফিরে পেলেন আনন্দের এক সংবাদ।

শাহজাদের ঘর আলো করে এসেছে ফুটফুটে এক পুত্র সন্তান। পৃথিবীর যে কোনো বাবার জন্যই তো এটা স্বপ্নময় এক মুহূর্ত। এর চেয়ে বড় আনন্দ তো আর কিছু হতে পারে না। দুঃখের দিনে যেন শান্তির বার্তা নিয়েই পৃথিবীতে আসলেন শাহজাদ-পুত্র।

বড় স্বপ্ন নিয়েই আফগানিস্তানের হয়ে বিশ্বকাপ খেলতে গিয়েছিলেন শাহজাদ। কিন্তু ইনজুরির কারণে মাত্র দুই ম্যাচ খেলেই দেশে ফিরতে হয়ে তাকে। ছিটকে যান বিশ্বকাপ থেকে। পরে তার বদলি হিসেবে দলে নেয়া হয় ইকরাম আলিকে। তবে আফগানিস্তান এক সংবাদমাধ্যমকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে বোমা ফাটান শাহজাদ।

শাহজাদের দাবি, তাকে জোর করেই বিশ্বকাপ দল থেকে বাদ দেয়া হয়েছে। তিনি বলেছিলেন, ‘ইনজুরি নিয়ে আমার কোনো সমস্যা নেই। আমি সম্পূর্ণ ফিটই আছি। কিন্তু আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড কোনো পরামর্শ না করেই আমাকে জোর করে দল থেকে বাদ দিয়ে দেয়।’ এমন বক্তব্যের পর আফগান এই ক্রিকেটার হুমকি দেন ক্রিকেট ছাড়ার।

শাহজাদ আরও বলেন, ‘আমি লন্ডনে ডাক্তারের কাছে গিয়েছি। তিনি আমার হাঁটু থেকে কিছু পানি বের করে দিলেন এবং ঔষধ দিলেন। বললেন, দুই-তিনদিন বিশ্রাম নিলে আমি আবার খেলতে পারবো। আমি নিজেকে আর ক্রিকেটে দেখতে চাই না। বিশ্বকাপে খেলা ছিল আমার কাছে একটা স্বপ্ন।’

তবে শাহজাদের এই অভিযোগ অস্বীকার করে আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। তাদের পক্ষ থেকে জানানো হয়, ‘এটা পুরোপুরি ভুল যে, তাকে অনৈতিকভাবে দল থেকে বাদ দেয়া হয়েছে। আমরা আইসিসির কাছে তার ইনজুরি এবং ফিটনেস সম্পর্কিত মেডিক্যাল রিপোর্ট জমা দিয়েছি। তারা আমাদের কাছ থেকে সঠিক কাগজপত্র পেয়েই খেলোয়াড় পরিবর্তনের অনুমতি দিয়েছে।’

এএইচএস/এমএমআর/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :