আমিরের ভয়ে আউট না হয়েও চলে গেলেন কোহলি?

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:০১ পিএম, ১৬ জুন ২০১৯

বিশ্বকাপে এবার ভুল আউটের শিকার হলেন ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। তাও আবার চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের বিপক্ষে। তবে এর দায় অবশ্য পুরোটা কোহলির নিজেরই। কেননা রিভিউ হাতে থাকার পরও সেটা ব্যবহার করেননি এই ব্যাটসম্যান, উল্টো নিজ থেকেই মাঠ ছেড়ে গিয়েছেন তিনি।

ইনিংসের ৪৮তম ওভারে ৭৭ রান নিয়ে তখন ক্রিজে ব্যাট করছিলেন কোহলি। ওভারের চতুর্থ বলে মোহাম্মদ আমিরের এক বাউন্সারে পুল করতে গিয়ে ব্যাটে লাগাতে ব্যর্থ হন এ ব্যাটসম্যান। তবে বল উইকেটকিপার সরফরাজ আহমেদ হাতে তালুবন্দি করার পর তেমন জোরালো আবেদন করেনি পাকিস্তানের ফিল্ডাররা।

তবু নিজ থেকেই উইকেট ছেড়ে চলে যান কোহলি। আম্পয়ারের অবস্থা দেখেও মনে হচ্ছিলো তিনি আউটের আঙুল তুলবেন না। কিন্তু কোহলি নিজে মনে করেছিলেন বলটি তার ব্যাটে লেগেছে, তাই স্বউদ্যোগে মাঠ ছেড়ে চলে যান তিনি। আউট হওয়ার আগে ৬৫ বলে ৭৭ রান করেন ভারতীয় অধিনায়ক।

কোহলির এই আউট টিভি রিপ্লেতে দেখালে সেখানে দেখা যায় বল ব্যাটের কোন কানায়ই লাগেনি। তাই তার উইকেট ছেড়ে বেরিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্তে কপাল পুড়ে ভারতের। কেননা কোহলির মতো সেট ব্যাটসম্যান যদি ইনিংসের শেষ ওভার পর্যন্ত থাকত, তাহলে অন্তত আরও কিছু বেশি রান করতে পারত ভারত।

কোহলির এমন আউটের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম গুলোতে বইতে আলোচনা-সমালোচনার ঝড়। তার রিভিউ না নেয়ার সিদ্ধান্তে চমকে যান জনপ্রিয় ধারাভাষ্যকার হার্শা ভোগলে। টুইটারে টুইট করে তিনি লেখেন, ‘ওয়াও! স্নিকো মিটারে কোহলির ব্যাটে কিছুই ধরা পড়েনি এবং সে চলে গেল!’

এছাড়াও কোহলি রিভিউ না নেয়ায় অনেকে বিদ্রুপ করতে দ্বিধাবোধ করেন নি। আমির নামে একজন পাকিস্তান ভক্ত এক ধাপ এগিয়ে জানান আমিরের ভয়েই চলে গেছেন কোহলি। তিনি লিখেন, ‘মোহাম্মদ আমিরের মুখোমুখি আর হতে চান না কোহলি। তাই রিভিউ না নিয়ে চলে গেছেন।’

এএইচএস/এসএএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]