আইপিএলে আমি ব্যর্থ, কোনো দলে স্থায়ী হতে পারিনি: যুবরাজ

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:২২ পিএম, ০৯ জুলাই ২০১৯

এক মাস আগেই বিদায় জানিয়েছেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে। বর্ণিল এক ক্যারিয়ারের সমাপ্তিটা ঘটেছে একটু বিবর্ণভাবেই। ভারতের হয়ে ভিন্ন দুই ফরম্যাটে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয়েছেন যুবরাজ সিং। যার দুটিতেই নির্বাচিত হয়েছেন ম্যান অব দ্য টুর্ণামেন্ট হিসেবেও।

তবে নিজ দেশের বিখ্যাত টি-টোয়েন্টি ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ আইপিএলে তার ক্যারিয়ারটা খুব বেশি রঙিন নয়। এখন পর্যন্ত ১২ বার এই লিগ আয়োজিত হয়েছে; কিন্তু এতোগুলো বছরেও কোনো দলে স্থায়ী হতে পারেননি যুবরাজ সিং। কেউ বলতে পারবে না, আইপিএলে যুবরাজ হচ্ছেন অমুক দলের ক্রিকেটার।

কোনো দলে স্থায়ী না হতে পারার আক্ষেপ রয়েছে ভারতের সর্বকালের অন্যতম সেরা এই অলরাউন্ডারের মধ্যে। তিনি বলেন, ‘আমি ব্যাখ্যা করতে পারবো না; কিন্তু আমি কোনো ফ্যাঞ্চাইজিতেই স্থায়ী হতে পারিনি। আমি সত্যিই কোনো একটা বা দুইটা দলে স্থায়ী হতে পারিনি।’

আক্ষেপ থাকলেও এ নিয়ে কোনো অভিযোগ নেই ভারতের বিশ্বকাপ জয়ী ক্রিকেটার যুবরাজের। তিনি আরো বলেন, ‘তবে এটা নিয়ে আমার কোনো অভিযোগ নেই। মুম্বাইয়ের সঙ্গে থাকা ও তাদের হয়ে ট্রফি জেতা এবং হায়দরাবাদের হয়ে আইপিএল জেতা আমার জন্য দারুণ অভিজ্ঞতা।’

২০০৭ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপই ক্রিকেটকে বদলে দিয়েছে বলে মনে করেন যুবরাজ। সে আসর ক্রিকেটকে পরবর্তী ধাপে পৌঁছে দিয়েছে বলেই বিশ্বাস তার। নিজেদের উজাড় করে দিয়েই ওই বিশ্বকাপে ভারতের ক্রিকেটাররা খেলেছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

যুবরাজ বলেন, ‘ওটা সত্যিই বিস্ময়কর এক টুর্নামেন্ট ছিলো। এটা ক্রিকেটকে পরবর্তী ধাপে পৌঁছে দিয়েছে। আমরা বিশ্বকাপ জিতবো, এমন প্রত্যাশা কারোরই ছিলো না। আমরা সাহসী ক্রিকেট খেলেছিলাম। আমাদের অধিনায়ক নতুন ছিলেন, আমরা বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে হেরেও গিয়েছিলাম। ফাইনালে যেতে হলে আমদের তিন ম্যাচেই জয় পেতে হতো। আমরা কেবল নিজেদের উজাড় করে দিতে চেয়েছি।’

এমএইচবি/আইএইচএস/