সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি দিয়ে লজ্জায় পড়লেন রবি শাস্ত্রী

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:১৯ পিএম, ২৭ আগস্ট ২০১৯

রবি শাস্ত্রীর উপর ভারতীয় সমর্থকরা খেপে রয়েছেন দ্বিতীয় মেয়াদে তাকে কোচের দায়িত্ব দেয়ার পর থেকেই। সর্বশেষ বিশ্বকাপে ভারত সেমিফাইনালের বেশি যেতে পারেনি, তারপরও শাস্ত্রীর সঙ্গে কেন চুক্তি বাড়ানো হলো? এমন প্রশ্নই তাদের।

ভারতীয় ক্রিকেট দলের কোচ হিসেবে এসেছিল বড় বড় নাম। শর্ট লিস্টে ছিলেন টম মুডি, মাইক হেসন, ফিল সিমন্সের মতো হাইপ্রোফাইল বিদেশি কোচ। কিন্তু ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) তাদের কাউকেই পছন্দ করেনি। চুক্তির মেয়াদ বাড়িয়েছে স্বদেশি রবি শাস্ত্রীরই।

বিষয়টি ভালোভাবে নেননি ভারতীয় সমর্থকরা। শাস্ত্রী কোচ হওয়ার খবর প্রকাশ হতেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে রীতিমত সরব হয়ে উঠেন তারা। বেশিরভাগই অবস্থান নেন এমন সিদ্ধান্তের বিপক্ষে।

সেই ক্ষোভটা যে এখনও কমেনি ভারতীয় সমর্থকদের, সেটা বোঝা গেল রবি শাস্ত্রীর এক ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্টের পর। এমন নয় যে নতুন মেয়াদে শুরুটা খারাপ হয়েছে শাস্ত্রীর। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে ভারত এখন পর্যন্ত হার দেখেনি। টি-টোয়েন্টি, ওয়ানডে সিরিজের পর টেস্ট সিরিজও শুরু করেছে জয় দিয়ে।

অ্যান্টিগায় সিরিজের প্রথম টেস্টে ৩১৮ রানের বড় জয়ের পর ফুরফুরে মেজাজে রয়েছে ভারতীয় দল। ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জে সমুদ্র বিলাসে বেরিয়েছে কোহলি বাহিনী। বাদ ছিলেন না কোচ রবি শাস্ত্রীও। আর সবার মতো তিনিও আনন্দ করেছেন, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছবিও আপলোড করেছেন।

তবে বাকিদের ছবিতে ভালোবাসা আর লাইক রিয়েক্টের সঙ্গে ভালো ভালো কমেন্ট পড়লেও রবি শাস্ত্রী ছবি পোস্ট করার পরই তাতে উল্টাপাল্টা মন্তব্য শুরু করেন ভারতীয় সমর্থকরা। রীতিমত আগ্রাসী ভূমিকায় দেখা গেছে তাদের।

ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জের নৈসর্গিক সৌন্দর্যের মাঝে দুই হাত প্রসারিত করা এক পোজে ছবি তুলে সেটা সোমবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে আপলোড করেন রবি শাস্ত্রী। যেখানে তিনি লিখেন, ‘গরম গরম গরম। এখন কিছু জুস খাওয়ার সময়। কোকো বে'র খাড়া পাহাড়গুলো খুব সুন্দর। অ্যান্টিগা।’

শাস্ত্রীর এই ছবির নিচে সব নেতিবাচক কমেন্ট আসতে থাকে। একজন লিখেছেন, ‘ফিটনেস আর পেটের দিকে নজর দিন। ভারতীয় দলের হেড কোচ আপনি, গলির কোচ নন।’

আরেকজন লিখেছেন, ‘আপনার বিয়ার দরকার, জুস নয়। পরের ছবিতে আপনার সাইড ভিউটাও দেবেন, দেখি পেটের বাচ্চাটা কত বড় হয়েছে।’ আরেক সমর্থকের রি-টুইট, ‘স্যার, আপনার ড্রেস সেন্সটার উন্নতি করুন। খুবই বিশ্রি লাগছে দেখতে।’

কেউ কেউ আবার ফটো কমেন্ট করেছেন। যার মধ্যে একটিতে দেখা যাচ্ছে, শাস্ত্রীর দুই হাতে দুই মদের বোতল। আরেকটিতে দেখা যায়, বিরাট এক গ্লাস দিয়ে অ্যালকোহলিক ড্রিংক পান করছেন ভারতের কোচ।

বোঝাই যাচ্ছে, শাস্ত্রীর প্রতি এখন আর এতটুকু সমর্থন নেই ভারতীয় সমর্থকদের। দল সাফল্য পাচ্ছে তবু এই অবস্থা, একটু খারাপ করলে না জানি কি হয়!

এমএমআর/জেআইএম