কমেছে আকমলের শাস্তি, পছন্দ হয়নি পিসিবির

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৪২ এএম, ১১ আগস্ট ২০২০

উমর আকমল এখন ভাবতেই পারেন, ‘কী কারণে যে ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পেয়েও সেটি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডকে জানাইনি!’ কেননা তার এই অপরাধের দীর্ঘসুত্রতা এতোই দীর্ঘ হচ্ছে যে, কোথায় হবে এর শেষ, তা হয়তো কারও জানা নেই। এবার আকমলের বিরুদ্ধে আপিল করবে খোদ তার দেশেরই ক্রিকেট বোর্ড।

গত মাসের শেষদিকে সুখবরই পেয়েছিলেন উমর। পাকিস্তান সুপার লিগে পাওয়া ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব গোপন রাখা দায়ে যে তিন বছর নিষেধাজ্ঞা পেয়েছিলেন তিনি, সেটি কমিয়ে আনা হয় দেড় বছরে। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) নিয়োগ দেয়া নিরপেক্ষ বিচারকের রায়েই কমেছিল শাস্তি।

যার ফলে ২০২১ সালের আগস্ট পর্যন্ত খেলার বাইরে থাকতে হবে তাকে। কিন্তু নিরপেক্ষ বিচারকদের রায় পছন্দ হয়নি খোদ পিসিবিরই। তারা এবার আকমলের এই শাস্তি কমানোর বিরুদ্ধে সুইজারল্যান্ডে আন্তর্জাতিক ক্রীড়া আদালতে আপিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

আনুষ্ঠানিক এক সংবাদ বিবৃতির মাধ্যমে এ কথা জানিয়েছে পিসিবি। যেখানে তারা লিখেছে, ‘দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত বিষয়গুলো সম্পর্কে পিসিবি এখন জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করছে। পিসিব বিশ্বাস করে উমর আকমলের মতো একজন সিনিয়র ক্রিকেটার এসব বিষয়াদি সম্পর্কে বেশ ভালোভাবেই জানে।’

‘তবু বেশ কয়েকবার ঘরোয়া ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পেয়েও সেটি জানায়নি সে। উমরকে দুর্নীতির দায়ে নিষিদ্ধ করাটা গর্বের পর্যায়ে দেখে না পিসিবি। তবে আমরা একটি বিষয় স্পষ্ট করে জানাতে চাই যে, দুর্নীতির বিরুদ্ধে আমাদের অবস্থান কঠোর। আমরা একটা বার্তা সবার কাছে পৌঁছে দিতে চাই যে, নিয়ম ভঙ্গ করে কেউই পার পাবে না।’

২৯ বছর বয়সী উমর আকমল পাকিস্তানের সাবেক উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান কামরান আকমলের ভাই এবং বর্তমান পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজমের কাজিন। দেশের হয়ে ৫৩টি টেস্ট, ৫৮ টি-টোয়েন্টি আর ১৫৭টি ওয়ানডে খেলেছেন তিনি।

সর্বশেষ ২০১৯ সালের অক্টোবরে জাতীয় দলের জার্সি গায়ে চাপানো আকমল টেস্টে ১০০৩, ওয়ানডেতে ৩১৯৪ এবং টি-টোয়েন্টিতে ১৬৯০ রান করেছেন।

টেস্ট অভিষেকেই নিউজিল্যান্ডের মাঠে সেঞ্চুরি দিয়ে শুরু করা উমর আকমলকে পাকিস্তানের অন্যতম প্রতিভাবান ব্যাটসম্যান মনে করা হয়। কিন্তু নানা বিতর্কে ক্যারিয়ার বারবার হুমকির মুখে ফেলেছেন তিনি নিজেই।

এসএএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]