ইউনাইটেডের মাঠে জিতে পিএসজির ইতিহাস

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৫৭ এএম, ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

খেলোয়াড় কেনায় পেট্রো ডলারের ঝনঝন কিন্তু ইউরোপিয়ান ফুটবলে মাঠের খেলায় ঠনঠন- ফরাসি ফুটবল ক্লাব প্যারিস সেইন্ট জার্মেইর (পিএসজি) ব্যাপারে এমনভাবেই ফোঁড়ন কেটে থাকেন নিন্দুক-সমালোচকরা। সেসব নিন্দা-সমালোচনাকে জয় করতে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগে সাফল্য পাওয়া ব্যতীত অন্য কোনো পথ নেই।

কিন্তু এই কাজে গত কয়েক মৌসুম ধরে ব্যর্থ হয়ে এসেছে পিএসজি। তবে চলতি মৌসুমে যেন ভিন্ন বার্তাই নিয়ে এসেছে থমাস টুখেলের দল। শেষ ষোলোর প্রথম লেগের ম্যাচে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের মাঠ থেকে ২-০ গোলের জয় নিয়ে ফিরেছেন অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া, কিলিয়ান এমবাপেরা।

ইতিহাসের প্রথম ফরাসি দল হিসেবে ইউনাইটেডের ঘরের মাঠ ওল্ড ট্রাফোর্ড থেকে জয় নিয়ে বাড়ি ফেরার রেকর্ড গড়লো তারা। এর আগে ফ্রান্সের কোনো ক্লাব গড়তে পারেনি এ কীর্তি।

অথচ দলের দুই সেরা তারকা এডিনসন কাভানি এবং নেইমারের ইনজুরির কারণে এ ম্যাচে পিএসজির সম্ভাবনা নিয়ে শঙ্কায় ছিলেন অনেকেই। সেসব সম্ভাবনা উড়িয়ে দিয়েছেন আর্জেন্টাইন তারকা ডি মারিয়া। তার এসিস্ট থেকেই ম্যাচ জেতানো গোল দুইটি করেছেন প্রেস্নেল কিম্পেম্বে এবং কিলিয়ান এমবাপে।

প্রথমার্ধে মাঠে খেলার চেয়ে যেনো ফাউলের বাহারই ছিলো বেশি। গোলশূন্য এ সময়ে কেউই তেমন কোনো সুযোগ তৈরি করতে পারেনি। উল্টো ছিল ফাউলের ছড়াছড়ি; এ সময়ে মোট ১৩ বার ফাউলের বাঁশি বাজান রেফারি। পাঁচ জনকে দেখান হলুদ কার্ড; দ্বিতীয়ার্ধে দেখান আরও তিনটি।

দ্বিতীয়ার্ধে ফিরে ৫৩তম মিনিটে ডি মারিয়ার কর্ণার থেকে এমবাপে এবং ৬০তম মিনিটে একই খেলোয়াড়ের ক্রস থেকে গোল করেন কিম্পেম্বে। এ দুই গোলেই নিশ্চিত হয়ে যায় পিএসজির জয়। ম্যাচের ৮৯তম মিনিটে লাল কার্ড দেখেন ম্যান ইউ তারকা পল পগবা।

যে কারণে দ্বিতীয় লেগের ম্যাচে খেলতে পারবেন না ফরাসি এ মিডফিল্ডার। মঙ্গলবার শেষ ষোলোর অন্য ম্যাচে ইতালিয়ান ক্লাব রোমা নিজেদের মাঠে ২-১ গোলে পর্তুগালের দল এফসি পোর্তোকে হারিয়েছে।

এসএএস/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :