এল ক্লাসিকো হেরে রেফারিকে ধুয়ে দিলেন বার্সা কোচ

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:৪৭ এএম, ১১ এপ্রিল ২০২১

শনিবার রাতে চির প্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদের কাছে এল ক্লাসিকোতে ২-১ গোলে হেরে গেছে বার্সেলোনা। এ পরাজয়ের ফলে পয়েন্ট টেবিলের তিন নম্বরে নেমে গেছেন লিওনেল মেসিরা। ম্যাচ শেষে রেফারির এক হাত নিয়েছেন বার্সা কোচ রোনাল্ড কোম্যান।

ম্যাচের প্রথমার্ধেই জোড়া গোল হজম করে ফেলেছিল বার্সেলোনা। প্রথম ১৩ মিনিটের সময় চলতি লিগে নিজের ১৯তম গোলটি করেন করিম বেনজেমা। পরে ২৭ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন টনি ক্রুস। দ্বিতীয়ার্ধে বার্সার পক্ষে অস্কার মিনগুয়েজা এক গোল শোধ করলেও তা যথেষ্ঠ ছিল না।

বার্সা কোচের মূল ক্ষোভের জায়গা দুইটি বিষয় নিয়ে। প্রথমত মুষলধারে বৃষ্টির কারণে ম্যাচের ৭৮ মিনিটের সময় রেফারির ইলেক্ট্রনিক হেডসেটে গোলযোগ দেখা দেয়। তা ঠিক করতে প্রায় তিন মিনিটের বেশি সময় লেগে যায়। কিন্তু নির্ধারিত ৯০ মিনিট শেষে অতিরিক্ত দেয়া হয় মাত্র ৪ মিনিট।

এছাড়া ৮৩ মিনিটের সময় ডি-বক্সের মধ্যে ফারল্যান্ড মেন্ডির সঙ্গে বল দখলের লড়াইয়ে পড়ে যান বার্সা ফরোয়ার্ড ব্রাথওয়েট। এটিতে পেনাল্টির দাবি তোলে বার্সেলোনা। কিন্তু তা কানে তোলেননি রেফারি। উল্টো এটিকে ঘিরে রেফারির সঙ্গে তর্কে জড়িয়ে হলুদ কার্ড দেখেন জর্দি আলবা।

ম্যাচ শেষে এ দুইটি বিষয়ে রেফারিকে ধুয়ে দেন কোম্যান। তার ভাষ্য, ‘আমরা পেনাল্টির ঐ পরিস্থিতিটা অত্যন্ত ক্ষুদ্ধ। সেটা পরিষ্কার পেনাল্টি ছিল। এটা কোনো ফেয়ার প্লে নয়। আপনি এটাকে পেনাল্টি না দিলে, আমি আর কিছুই বুঝতে পারি না। আরও একবার আমাদের সব মেনে নিতে হবে।’

কোম্যান আরও যোগ করেন, ‘এটা অবশ্যই পেনাল্টি ছিল। তা যদি দেয়া হতো তাহলে স্কোরলাইন থাক ২-২। আমি জানি না ঠিক কী কারণে স্পেনে ভিডিও এসিস্ট্যান্ট রেফারি (ভিএআর) রয়েছে। পৃথিবীর সবাই দেখেছে এটা পেনাল্টি ছিল। আমি সবসময় আমার দলের পক্ষে। এর বেশি কিছু বলার নেই।’

এসময় অতিরিক্ত যোগ করা সময়ের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমি রেফারির কাছ থেকে শুধুমাত্র সঠিক সিদ্ধান্তের দাবিই রাখছি। এটা অবশ্যই পেনাল্টি ছিল। পরে মাত্র ৪ মিনিট অতিরিক্ত দেয়া হলো। অথচ রেফারির হেডসেট ঠিক করার জন্য কতগুলো সময় নষ্ট হয়েছিল।’

এসএএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]