আইফোনের ব্যাটারি হেলথ ভালো রাখতে করণীয়

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক
তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:০৩ পিএম, ২৪ জানুয়ারি ২০২২

আইফোনের ব্যাটারি হেলথ কিন্তু খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। ব্যাটারি হেলথ হচ্ছে আপনার আইফোনের ব্যাটারির আয়ু জানান দেবে। আর এজন্য আইফোনের ব্যাটারি হেলথ নিয়ে ব্যবহারকারীদের চিন্তার শেষ নেই। বিশেষ করে যারা প্রথমবার আইফোন ব্যবহার করছেন, তারা সবচেয়ে বেশি সমস্যায় পড়েন।

আইফোন থেকে সন্তোষজনক ব্যাটারি ব্যাকাপ না পেলে ব্যাটারি কেস বা পাওয়ার ব্যাংক ব্যবহার করে থাকেন অনেকেই। তবে আইফোনের মধ্যে থাকা সেটিংস ও কিছু নিয়ম মেনে চললে যে কোনো আইফোন থেকেই ভালো ব্যাটারি ব্যাকাপ পাওয়া সম্ভব। আর বেশি ব্যাটারি ব্যাকাপ পাওয়া মানেই ব্যাটারি ডিসচার্জ সাইকেল ও ব্যাটারির ব্যবহার অপেক্ষাকৃত কমে যাবে। ফলে ব্যাটারি হেলথ ভাল থাকবে।

চলুন জেনে নেওয়া যাক আইফোনের ব্যাটারি হেলথ ভালো রাখতে যা করবেন-

> আইফোনের ব্যাটারি লাইফ উন্নতি করতে ডার্ক মোড ব্যবহার খুবই কার্যকরী। ডার্ক মোড চালু থাকা অবস্থায় স্মার্টফোন ব্যবহার চোখের জন্য বেশ সুবিধাজনক হওয়ার পাশাপাশি কম ব্যাটারি পাওয়ার ব্যবহার করে। ডার্ক মোড ব্যবহারে স্ক্রিনে অনেক অপ্রয়োজনীয় কালার অফ থাকার কারণে অপেক্ষাকৃত কম ব্যাটারি ব্যবহৃত হয়, ফলে ব্যাটারি ব্যাকাপ বৃদ্ধি পায়।

> প্রয়োজনের সময়ে ব্যাটারি লাইফ কিছুটা বাড়াতে লো পাওয়ার মোড বেশ কাজে আসতে পারে। Low Power Mode চালু থাকলে Email Fetching, ব্যাকগ্রাউন্ড অ্যাপ রিফ্রেশ অটো-ডাউনলোড, ইত্যাদি ব্যাকগ্রাউন্ড প্রসেস বন্ধ হয়ে যায়।

> ব্যাটারি ইউসেজ সেকশনে খেয়াল করলে লক্ষ্য করবেন “হোমস্ক্রিন ও লকস্ক্রিন” এর ব্যাটারি ইউসেজ অপেক্ষাকৃত বেশি হয়ে থাকে। এর কারণে ফোনের অটো-লক সেটিংসে নির্দিষ্ট টাইম সেট করে দেওয়া ভালো।

> স্ক্রিন ব্রাইটনেস অপটিমাইজ করেও আইফোনের ব্যাটারি লাইফ ভালো রাখা যায়। কন্ট্রোল সেন্টার থেকে খুব সহজে স্ক্রিনের ব্রাইটনেস এডজাস্ট করা যাবে।

> ব্যাটারি হেলথ ভালো রাখার আরেকটি উপায় হচ্ছে তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ রাখা। অ্যাপল এর প্রদত্ত তথ্যমতে আইফোন ও অনন্য অ্যাপল ডিভাইসের জন্য আদর্শ এমবিয়েন্ট তাপমাত্রা হলো ৬২ডিগ্রি ফারেনহাইট থেকে ৭২ডিগ্রি ফারেনহাইট বা ১৬ডিগ্রি সেলসিয়াস ২২ডিগ্রি সেলসিয়াস। ৯৫ডিগ্রি ফারেনহাইট (৩৫ডিগ্রি সেলসিয়াস) তাপমাত্রা ফোনের ব্যাটারি ক্যাপাসিটির স্থায়ীভাবে ক্ষতি করতে পারে।

> নোটিফিকেশন বন্ধ রাখুন। যে কোনো অ্যাপের নোটিফিকেশন চালু থাকলে উক্ত অ্যাপের লেটেস্ট নোটিফিকেশনের জন্য ব্যাটারি ও ডাটা ব্যবহার করে সিস্টেম। তাই অপ্রয়োজনীয় অ্যাপসমূহের নোটিফিকেশন বন্ধ রেখে আইফোনের ব্যাটারি উল্লেখযোগ্যহারে সেভ করা যেতে পারে।

> ব্যাটারি চার্জিংয়ের বিষয়টি খেয়াল রাখুন। আইফোনে ব্যবহৃত লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারির ব্যাটারি লাইফ নির্ভর করে উক্ত ব্যাটারি কিভাবে চার্জ করা হয়েছে তার উপর। আদর্শ তাপমাত্রার হেরফের বা ওভারচার্জিং এর কারণে আইফোনের ব্যাটারি লাইফে প্রভাব পড়তে পারে।

> ফোন কেস এর মধ্যে রেখে চার্জ করার কারণে অনেক সময় ওভারহিট হতে দেখা যায়। এমন কিছু হলে সম্ভব হলে আইফোন চার্জ করার সময় বাড়তি কভারটি খুলে রাখুন।

কেএসকে/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]