ক্রোম ব্যবহারে যে ভুল ডেকে আনবে বিপদ!

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক
তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:১১ পিএম, ২৩ জুন ২০২২

বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় টেক জায়ান্ট গুগলের ইন্টারনেট ব্রাউজার ক্রোমের ব্যবহারকারীর সংখ্যা কয়েক কোটি। কম্পিউটার ও মোবাইল থেকে প্রায় সবাই এই ব্রাউজার ব্যবহার করেন। ক্রোমকে সুরক্ষিত রাখতে নিয়মিত আপডেট পাঠায় গুগল। তবে জানেন কি? নিজের অজান্তেই ক্রোম ব্রাউজার ব্যবহারে একটা ভুল আপনার সব তথ্য হ্যাকারদের কাছে পৌঁছে দিতে পারে।

অনলাইন ট্র্যাকিং বিষয়টি নতুন নয়। এখন অনেক বেশি হলেও ইতিহাসের প্রথম থেকেই হয়ে আসছে এটি। তবে বিগত এক দশকে অনলাইন ট্র্যাকিংয়ের পরিমাণ আকাশ ছুঁয়েছে। বিশেষ করে বিজ্ঞাপন দেখানোর জন্য ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত তথ্য নিয়মিত চুরি করতে থাকে বিভিন্ন সংস্থা।

বিভিন্ন টুল ব্যবহার করে এই কাজ করে সাইবার ক্রিমিনাল ও ডিজিটাল মার্কেটাররা। ব্যবহারকারীকে ব্যক্তিগত বিজ্ঞাপন দেখানোর উদ্দেশ্যেই এই কাজ করা হয়। হ্যাকারদের দৌরাত্ম এখন সব জায়গায়। ইন্টারনেটে ব্যবহারকারীরা কোথাও সুরক্ষিত নয়।

বিলেপিংকম্পিউটার ওয়েবসাইটে প্রকাশিত রিপোর্ট অনুযায়ী ওয়েব ডেভেলপাররা z0ccc নামে একটি এক্সটেনশন ফিঙ্গারপ্রিন্ট তৈরি করেছেন। যে কোনো ব্রাউজার এক্সটেনশনে এই ফিঙ্গারপ্রিন্ট ব্যবহার করে ব্যবহারকারীর উপর নজরদারি সম্ভব।

গবেষকরা বলছেন এরই মধ্যে গুগল ক্রোম ব্রাউজারের বিভিন্ন এক্সটেনশনে একটি গোপন টোকেন ব্যবহার শুরু হয়েছে। এই ফিঙ্গারপ্রিন্ট এক্সটেনশনটি গুগল ক্রোম ওয়েব স্টোরের ১ হাজার ১৭০টি জনপ্রিয় এক্সটেনশনকে স্ক্যান করতে পারে। যদিও ফায়ারফক্স ব্রাউজারে এই স্ক্যান কাজ করে না।

যেভাবে সুরক্ষিত থাকবেন-
>> যে ওয়েব ব্রাউজার ব্যবহার করছেন তা নিয়মিত আপডেট করুন। এজন্য ব্রাউজার ওপেন করে সেটিংস ওপেন করুন। এর পরে ‘চেক ফর আপডেট’ অপশন বেছে নিন।

>> যে কোনো ওয়েবসাইট ব্রাউজারে ‘ইনকোগনিটো মোড’ ওপেন করুন। কোনো কোনো ব্রাউজারে ‘প্রাইভেট মোড’ নামে এই ফিচার ব্যবহার হয়। এই মোডে ব্রাউজিং করলে আপনার কোনো তথ্য সেভ হবে না। এছাড়াও কোনোভাবেই আপনার অনলাইন অ্যাকটিভিটি ট্র্যাক করা যাবে না।

>> ব্রাউজারে যে কোনো এক্সটেনশন ইনস্টল করার অভ্যাস বন্ধ করুন। কেবল বিশ্বাসযোগ্য ডেভেলপারদের এক্সটেনশন ব্রাউজারে ইনস্টল করুন। সুরক্ষিত থাকতে অজানা সোর্স থেকে থার্ড পার্টি এক্সটেনশন ডাউনলোড করবেন না।

কেএসকে/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]