শীতের ভ্রমণে সেন্টমার্টিন


প্রকাশিত: ০৬:৫৮ এএম, ১৩ নভেম্বর ২০১৬

শীত এসে গেছে। স্কুল-কলেজের পরীক্ষা শেষে দীর্ঘদিনের ছুটি শুরু হচ্ছে ডিসেম্বর থেকে। বছরের টানা কর্মব্যস্ত সময়কে পেছনে ফেলতে ঘুরে আসুন প্রবালদ্বীপ খ্যাত সেন্টমার্টিন থেকে। পরিবার, বন্ধু, সহকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে আয়োজন করতে পারেন বারবিকিউ পার্টি।

অবস্থান
কক্সবাজার জেলা শহর থেকে প্রায় ১২০ কিলোমিটার দূরে সাগর বক্ষের একটি ক্ষুদ্র দ্বীপ সেন্টমার্টিন। এই দ্বীপ ৭.৩ কিলোমিটার দীর্ঘ এবং আয়তন প্রায় ৮ বর্গ কিলোমিটার। এই দ্বীপকে ‘নারিকেল জিঞ্জিরা’ও বলা হয়। মূল দ্বীপ ছাড়াও আরো একটি ক্ষুদ্র দ্বীপ রয়েছে যা ‘ছেড়াদ্বীপ’ নামে পরিচিত।

sent-martin

বর্ণনা
যেদিকে চোখ যায় শুধু নীল আর নীল। আকাশ আর সমুদ্রের নীল সেখানে মিলেমিশে একাকার। অগভীর দীর্ঘ সমুদ্রতট, সামুদ্রিক প্রবাল, সাগরের ঢেউয়ের ছন্দ, নান্দনিক নারিকেল বৃক্ষের সারি, সাগর তীরে বাঁধা মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলার এসবই সেন্টমার্টিন দ্বীপের বৈশিষ্ট্য। যা ছোট্ট এই দ্বীপটিকে করেছে অনন্যসুন্দর। এর স্বচ্ছ পানিতে জেলি ফিশ, হরেক রকমের সামুদ্রিক মাছ, কচ্ছপ এবং প্রবাল এই দ্বীপের অন্যতম আকর্ষণ।

sent-martin

কীভাবে যাবেন
ঢাকা থেকে সরাসরি বাসে টেকনাফ গিয়ে সেখান থেকে সেন্টমার্টিন যেতে পারেন। ঢাকা থেকে টেকনাফ যায় সেন্টমার্টিন পরিবহন, এস. আলম সার্ভিস, সৌদিয়া পরিবহন ইত্যাদি। যেতে সময় লাগবে প্রায় ১১-১২ ঘণ্টা। বাস ভেদে ভাড়া পড়বে ১,০০০-২,৫০০ টাকা। তাছাড়া ঢাকা থেকে বিমানেও সরাসরি কক্সবাজার যাওয়া যায়। কক্সবাজার থেকে লোকাল বাসে টেকনাফ যাওয়া যায়।

টেকনাফ থেকে শিপে সেন্টমার্টিন যেতে হয়। শিপের মধ্যে উল্লেখযোগ্য কুতুবদিয়া, কেয়ারী সিন্দাবাদ, গ্রীণ লাইন ইত্যাদি। আপ-ডাউন ভাড়া পড়বে ৫৫০-১,২০০ টাকা। জেটি ঘাট থেকে প্রতিদিন শিপ সেন্টমার্টিনের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায় সকাল ৯.০০-৯.৩০ মিনিটে এবং সেন্টমার্টিন থেকে ফেরত আসে বিকাল ৩.০০-৩.৩০ মিনিটে।

sent-martin

কোথায় থাকবেন
সেন্টমার্টিনে থাকার জন্য বেশ কয়েকটি উন্নতমানের হোটেল ও কটেজ রয়েছে। তবে অবশ্যই আগে থেকে বুকিং দিয়ে যেতে হবে। নতুবা থাকার জন্য ভালো জায়গা পাওয়া যাবে না। থাকার জন্য উল্লেখযোগ্য হোটেল হলো- সী ভিউ রিসোর্ট অ্যান্ড স্পোর্টস, ব্লু মেরিন রিসোর্ট, সীমানা পেরিয়ে, প্রাসাদ প্যারাডাইস, লাবিবা বিলাস প্রভৃতি। ভাড়া পড়বে রুমভেদে ১,৫০০-৫,০০০ টাকা।

sent-martin

কোথায় খাবেন
পর্যটকদের খাবারের জন্য রয়েছে বেশ কিছু হোটেল ও রেস্তোরাঁ। তার কয়েকটি হল- সি ভিউ রেস্তোরাঁ, বিচ পয়েন্ট, হোটেল আল্লার দান, বাজার বিচ, আসাম হোটেল, সি বিচ, সেন্টমার্টিন ইত্যাদি।

sent-martin

সতর্কতা
প্রবালের উপর হাটার সময় সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে নতুবা পা কেটে যেতে পারে। ভাটার সময় বিচে না নামাই ভালো। যেহেতু সমুদ্রপথে যেতে হবে তাই যাবার পূর্বে আবহাওয়া সম্পর্কে তথ্য জেনে নিন।

এসইউ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]