আজকের জোকস : কনুই দিয়ে বেল বাজাবি

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:৩৮ এএম, ০৭ নভেম্বর ২০১৭

কনুই দিয়ে বেল বাজাবি

নিরব : শোন ইমন, আগামী রোববার আমার জন্মদিন। সন্ধ্যায় আমাদের বাসায় চলে আসিস।

ইমন : অবশ্যই আসবো। কিন্তু তোর বাসার ঠিকানা তো জানি না।

নিরব : শোন, মালিবাগ মোড় থেকে ডানদিকে এসে বামদিকের প্রথম গলিতে ঢুকে সোজা এগিয়ে ডানপাশের সরু গলিটার শেষ মাথায় আমাদের বাড়ি। বাড়ির তিন তলায় উঠে ডানপাশের দরজায় কনুই দিয়ে কলবেল বাজাবি, ব্যস্, আমি দরজা খুলে দেব।

ইমন : কনুই দিয়ে বেল বাজাতে হবে কেন? হাত দিয়ে বাজালে কী হয়?

নিরব : ওমা! তোর হাতে উপহারের বাক্স থাকবে না! হাত দিয়ে বেল বাজাবি কী করে?

****

বাঘ এসেছিল সর্দির ওষুধ কিনতে

এক চিকিৎসক তার এক ফরেস্টার বন্ধুর জঙ্গলের বাংলোয় বেড়াতে এসেছেন। সন্ধ্যায় দু’জনেই মদে চুর হয়ে গুলতানি করছেন। কথাচ্ছলে জঙ্গল অফিসার বললেন-

অফিসার : ভাই, আমি জঙ্গলের কোনো জানোয়ারকেই ভয় পাই না। গত মাসে একটা বাঘ এলো রাত্রে। আমার মশারির ওপাশে বাঘটাকে দেখতে পেয়ে আমি আমার মাথার পাশে টেবিলের ওপর রাখা এক মগ পানি তার গায়ে ছুঁড়ে দিলাম। তাতেই সে ভয় পেয়ে পালালো।

চিকিৎসক : এবার পেলাম একটা রহস্যের সমাধান। আরে হয়েছিল কী, গত মাসেই আমার মতিঝিলের চেম্বারে ভোরবেলা একটা বাঘ এসেছিল সর্দির ওষুধ কিনতে। তার গায়ে স্টেথোসকোপ লাগাবার সময় দেখেছিলাম লোমগুলো পানিতে ভর্তি।

****

শিকারি পায়ে গুলি করেছে

শেয়াল যাচ্ছিলো বনের রাস্তা দিয়ে। হঠাৎ দেখলো রাস্তার মাঝখানে একটি বাঘ বসে আছে।

শেয়াল : হুজুর, রাস্তার ওপর বসে আছেন যে? কোনো তকলিফ? থাকলে বলুন, আপনার সেবায় বান্দা হাজির।

বাঘ : আর বলো না শেয়াল! এক শিকারি পায়ে গুলি করেছে। হাঁটতেই পারছি না।

শিয়াল : তো ব্যাটা, নবাবের মতো রাস্তার মাঝখানে বইসা আছিস ক্যান? রাস্তা ছাড়!

এসইউ/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :