আজকের জোকস : এখন আর লজ্জা পাই না

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:২৮ এএম, ১২ নভেম্বর ২০১৭

এখন আর লজ্জা পাই না
এক ধনী ভদ্রমহিলা গেলেন মনোরোগ চিকিৎসকের কাছে-
ভদ্রমহিলা : ডাক্তার সাহেব, আমার অনেক বিশ্রী একটা স্বভাব আছে। আমার কোনো কিছুর অভাব নেই, তবু আমি সুযোগ পেলেই অন্যের জিনিস চুরি করি। আর চুরির পরে ভীষণ লজ্জা হয়।
চিকিৎসক : এটা একটা মনোরোগ। কয়েকটা ওষুধ লিখে দিচ্ছি, নিয়মিত খাবেন।

মাসখানেক পর ভদ্রমহিলা আবার এলেন-
চিকিৎসক : কী? কোনো ইম্প্রুভমেন্ট হলো আমার ওষুধে?
ভদ্রমহিলা : দারুণ ইম্প্রুভমেন্ট ডাক্তার সাহেব!
চিকিৎসক : কেমন?
ভদ্রমহিলা : আগে চুরির পরে লজ্জা পেতাম, এখন আর লজ্জা পাই না!

আরও পড়ুন- আজকের জোকস : আন্ডারওয়ার্ল্ডে কাজ করি

****

পাইপ বেয়ে ওঠানামা
এক ব্যক্তির হার্টের অসুখ। চিকিৎসকের কাছে গেলেন-
ব্যক্তি : ডাক্তার সাহেব, হার্টের অসুখটা খুব বেড়েছে। আমাকে বাঁচান।
চিকিৎসক : এই ওষুধগুলো খাবেন। পর্যাপ্ত বিশ্রাম নেবেন। সিঁড়ি দিয়ে ওঠানামা করবেন না। একমাস পরে আবার দেখা করবেন।

একমাস পরে সে আবার ডাক্তারের কাছে গেলো-
চিকিৎসক : তো বলুন, আপনার অবস্থা এখন কেমন?
ব্যক্তি : খুব ভালো। ওষুধগুলো ঠিকমতো খেয়েছি। এখন আমি অনেক সুস্থ।

চিকিৎসক তাকে পরীক্ষা করলেন এবং আরো কিছু ওষুধ লিখে দিলেন-
চিকিৎসক : আপনি আসলেই অনেক সুস্থ। যা হোক, এই ওষুধগুলো খাবেন। তাহলে পুরোপুরি সুস্থ হয়ে যাবেন।
ব্যক্তি : ডাক্তার সাহেব, আমি কি এখন সিঁড়ি দিয়ে ওঠানামা করতে পারব?
চিকিৎসক : ও হ্যাঁ, পারবেন। এখন আর সমস্যা নেই।
ব্যক্তি : বাঁচালেন ডাক্তার সাহেব। পাইপ বেয়ে ওঠানামা করতে যে কী কষ্ট, তা গত একমাসে হাড়ে হাড়ে টের পেয়েছি। আমার বাসা আবার পাঁচ তলায়।

আরও পড়ুন- আজকের জোকস : বিবাহবার্ষিকীতে হীরার আংটি

****

অবস্থা খুবই খারাপ
এক বাংলাদেশি লোক ভারতের এক জায়গায় বেড়াতে গিয়ে বোলতার কামড় খেয়ে অবস্থা খুবই খারাপ । ওই এলাকার লোক বাংলা-ইংরেজি কিছুই বোঝে না, শুধু হিন্দি বোঝে। লোকটি সামান্য হিন্দি জানলেও আবার বোলতার হিন্দি জানে না । সে চিকিৎসকের কাছে গিয়ে বললো-
লোক : হাম বোলতা কো বোলতা বোলতা, আপ বোলতা কো কেয়া বোলতা?
এ কথার শোনার পর চিকিৎসক লোকটিকে আর ট্রিটমেন্ট করতে পারেননি।

এসইউ/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :