আজকের জোকস : স্বামী ঘরে এসে মারধর করে

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:৩৬ এএম, ০৩ ডিসেম্বর ২০১৭

স্বামী ঘরে এসে মারধর করে
মহিলা : আমার স্বামী ঘরে এসেই আমাকে মারধর শুরু করে দেয়।
সাধু বাবা : সে যখনই বাসায় আসবে; তখনই এই তাবিজ তোর দাঁতের নিচে লাগিয়ে দিবি!

পাঁচ দিন পর-
মহিলা : বাবাজি তাবিজ দাঁতের নিচে লাগানোর পর এতো ফায়দা হলো যে, সে এখন আমাকে কিছুই বলে না।
সাধু বাবা : এটা তাবিজের ফল না, এটা তোর মুখ বন্ধ রাখার ফল।

****

পিঁপড়া মারার নিয়ম
পরীক্ষায় প্রশ্ন এলো- কিভাবে একটা পিঁপড়াকে মারতে হয়?
এক ছেলে উত্তর লিখেছে- প্রথমে চিনির সাথে মরিচের গুড়া মিশিয়ে রেখে দিতে হবে। পিঁপড়া সেটা খেয়ে পানি খুঁজবে। চারিদিকে পানির বালতিতে গিয়ে পিঁপড়াটা পড়ে যাবে। পরে নিজেকে শুকাতে আগুনের কাছে যাবে। আগুনের কাছে আগে থেকেই একটা বোমা রাখা হবে। বোমা বিস্ফোরণে পিঁপড়া আহত হয়ে হাসপাতালে যাবে। তার মুখে অক্সিজেন মাস্ক দেওয়া থাকবে। সেই অক্সিজেন মাস্কটা খুলে দিলেই পিঁপড়াটা মরে যাবে।

****

স্বামীর প্রতিভা দেখে স্ত্রী মুগ্ধ
আদম আলী বিদেশে গেছে। রাতে স্ত্রীকে নিয়ে রেস্টুরেন্টে খেতে গেল। ওয়েটার অর্ডার নিতে এলো। আদম আলী ভাবনায় পড়ে গেল। অনেক ভেবেচিন্তে বলল-
আদম আলী : স্যার, আই বিগ টু স্টেট দ্যাট, মাই ফাদার ইস সিরিয়াসলি ইল। কাইন্ডলি গ্রান্ট মি লিভ আফটার থার্ড পিরিয়ড।

ওয়েটার ভাবলো- খেতে আসছে যখন, নিশ্চয়ই খাবার চাচ্ছে। সে তার ইচ্ছামতো খাবার এনে দিলো। এদিকে স্বামীর প্রতিভা দেখে স্ত্রী মুগ্ধ-
স্ত্রী : ও আল্লাহ! তুমি ইংরেজিতে কথা বলতে পারো?
আদম আলী : আরে এখনো তো ‘দ্য কাউ’ শুনাই নাই।

এসইউ/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :