আজকের কৌতুক : প্রেমিক যখন পাঠাওয়ের চালক

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:২০ এএম, ১৭ মে ২০১৮
আজকের কৌতুক : প্রেমিক যখন পাঠাওয়ের চালক

কৌতুক- এক : প্রেমিক যখন পাঠাওয়ের চালক
প্রেমিকার বাড়ির সামনে প্রেমিকাকে ড্রপ করার সময় সামনে পড়ল প্রেমিকার বাবা। বাবা জিজ্ঞেস করলেন-
বাবা : ছেলেটা কে?
প্রেমিকা : আব্বা, উনি পাঠাওয়ের ড্রাইভার।
বাবা : ভাড়া কত হইছে?
মেয়ে : একশ’ টাকা।
বাবা : এই নাও, দিয়ে বিদায় করো।
ছেলে : ধন্যবাদ, ফুচকার দোকানে খরচ হওয়া একশ’ টাকা ফেরত দেওয়ার জন্য।

কৌতুক- দুই : জাদুর সুইমিং পুল
এক লোক পার্টি দিয়ে তার বন্ধুদের বললো, ‘আমার সুইমিং পুলটা জাদুর। সুইমিং পুলে নেমে যে তরল পদার্থের নাম বলবে, পুরো পুলের পানি সেই পদার্থ হয়ে যাবে।’

তার এক বাঙালি বন্ধু পুলে নেমে বললো, ‘কোক।’ সঙ্গে সঙ্গে পুরো পুলের পানি কোকে পরিণত হয়ে গেলো। সে প্রাণ ভরে কোক খেয়ে উঠে এলো।

এবার তার এক রাশিয়ান বন্ধু নেমে বললো, ‘ভদকা।’ সঙ্গে সঙ্গে পুরো পুলের পানি ভদকায় পরিণত হয়ে গেলো। সে প্রাণ ভরে ভদকা খেয়ে উঠে এলো।

এবার তার এক আমেরিকান বন্ধু ঝাঁপ দিতেই বাঙালিটি তাকে মনে করিয়ে দিলো, ‘আরে, তোমার পকেটে তো মোবাইল ফোনটা রয়ে গেছে।’
আমেরিকান বললো, ‘শিট!’

কৌতুক- তিন : প্রসূতি হাসপাতালে চলো
এক মহিলা ট্যাক্সিতে বসে ড্রাইভারকে বলল-
মহিলা : প্রসূতি হাসপাতালে চলো।

ট্যাক্সি ছুটতে শুরু করল সব গাড়িকে পেছনে ফেলে। ভয় পেয়ে মহিলা বলল-
মহিলা : অত জোরে চালানোর দরকার নেই তো! আমি ওখানে চাকরি করি।

এসইউ/আরআইপি