শেকৃবিতে মৎস্য সপ্তাহ উদযাপিত

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশিত: ০৬:১৫ পিএম, ২৩ জুলাই ২০১৯

বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা, আলোচনা সভা, মাছের পোনা অবমুক্তকরণের মধ্য দিয়ে শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ-২০১৯ উদযাপিত হয়েছে। আজ (মঙ্গলবার) বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিশারিজ অ্যান্ড অ্যাকোয়াকালচার অনুষদের আয়োজনে এ সব কর্মসূচি পালন করা হয়।

সকাল ১০টায় প্রশাসনিক ভবনের সামনে থেকে ব্যানার, প্ল্যাকার্ড, ফেস্টুন নিয়ে এক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে কৃষি অনুষদ সংলগ্ন পুকুরে গিয়ে শেষ হয়। সেখানে পোনা অবমুক্ত করেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো রইছউল আলম মন্ডল ও বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. কামাল উদ্দিন আহাম্মদ। এরপর বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি অনুষদের সেমিনার কক্ষে ‘টেকসই সুনীল অর্থনীতি অর্জনে সামুদ্রিক মৎস্য ব্যবস্থাপনা : বর্তমান প্রেক্ষিত ও ভবিষ্যৎ সম্ভাবনা’ শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

উপাচার্য প্রফেসর ড. কামাল উদ্দিন আহাম্মদের সভাপতিত্বে ও অ্যাকোয়াকালচার বিভাগের চেয়ারম্যান ড. এ এম সাহাবউদ্দিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রনালয়ের সচিব মো. রইছউল আলম মন্ডল, উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. সেকেন্দার আলী, কৃষি গবেষণা ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক ড. ওয়ায়েস কবির, মৎস্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আবু সাঈদ মো. রাশেদুল হক। অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন মৎস্য অধিদপ্তরের প্রকল্প পরিচালক হাসান আহম্মেদ চৌধুরী।

এসময় বিভিন্ন অনুষদের ডিন, শিক্ষক, কর্মকর্তা, মৎস্যবিজ্ঞানী ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে রইছউল আলম বলেন, বাংলাদেশ মৎস্য সম্পদে দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। এই সেক্টরের উন্নয়নে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, মৎস্যবিজ্ঞানীসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে একযোগে কাজ করতে হবে। যেসব গবেষণা ও প্রযুক্তি উদ্ভাবন করা হয়েছে সেগুলো মাঠ পর্যায়ে সম্প্রসারণ করলে মৎস্য সেক্টর আরও এগিয়ে যাবে। সকল জলাশয়কে মাছ চাষের উপযোগী করে গড়ে তুলতে হবে।

তিনি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে বলেন, আগামী দিনে বিশ্ব দরবারে দেশের ফিশারিজ সেক্টরের অবস্থান নির্ভর করবে তোমাদের ওপর। মেধা, শ্রম, ব্যবহারিক জ্ঞান, তথ্য-প্রযুক্তির উন্নতি প্রভৃতিকে কাজে লাগিয়ে এ দেশের মৎস্য সেক্টরকে তোমরাই এগিয়ে নেবে।

সভাপতির বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. কামাল উদ্দিন বলেন, নানা প্রকল্পের মাধ্যমে দেশে মাছ চাষে বিপ্লব সাধিত হয়েছে। সরকার নতুন নতুন প্রজেক্ট দিচ্ছে। এ প্রজেক্টের মাধ্যমে দেশের অভ্যন্তরীণ ও সামুদ্রিক মৎস্য সম্পদের সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা ও যথাযথ ব্যবহারের মাধ্যমে দেশের উন্নয়নে এ সেক্টর উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করবে।

মো. রাকিব খান/এনএফ/এমএস

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - [email protected]

আপনার মতামত লিখুন :