ভোট পেছানোর দাবিতে তৃতীয় দিনের অনশন, অসুস্থ বেড়ে ১৪

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশিত: ০৩:৩২ পিএম, ১৮ জানুয়ারি ২০২০

ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নির্বাচন আগামী ৩০ জানুয়ারি। একইদিন সরস্বতী পূজা হওয়ায় নির্বাচনের তারিখ পেছানোর দাবিতে আমরণ অনশন করছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) শিক্ষার্থীরা। এতে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন ১৪ জন। অনশনের ৪৮ ঘণ্টা অতিবাহিত হলেও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কেউ কোনো ধরনের আশ্বাস দেয়নি বা খোঁজ নেয়নি।

অসুস্থ শিক্ষার্থীরা হলেন- জগন্নাথ হল সংসদের ভিপি উৎপল বিশ্বাস, জিএস কাজল দাস, থিয়েটার অ্যান্ড পারফরমেন্স বিভাগের অপূর্ব চক্রবর্তী, সয়েল অ্যান্ড এনভায়রনমেন্ট বিভাগের অর্ক সাহা, জয়ন্ত বণিক, ভবতোষ চন্দ্র রায়; টুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সবুজ কুমার, পালি অ্যান্ড বুদ্ধিস্ট স্টাডিজ বিভাগের সুকেশ দেবনাথ, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের রবিউল আওয়াল রবি, ডাকসু সদস্য তানভীর হাসান সৈকত, ঢাবি শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দীপ্ত সাহা ও মার্কেটিং বিভাগের অভি দাস প্রীতম। এদের মধ্যে তিনজন ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) বিকেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্ত্রাসবিরোধী রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে অনশন শুরু করেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। অনশনে গতকাল বিকেল পর্যন্ত ৯ শিক্ষার্থীর অসুস্থতার খবর পাওয়া যায়।

ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি-ডিএসসিসি) নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকেই ভোটগ্রহণের তারিখ পেছানোর দাবি করে আসছিল সনাতন সম্প্রদায়। নির্বাচন কমিশন (ইসি) থেকে ৩০ জানুয়ারি ভোটগ্রহণের তারিখ নির্ধারণের পর ওই সম্প্রদায় বলে আসছিল, সেদিন সরস্বতী পূজার আয়োজন আছে, তাই ভোটগ্রহণের তারিখ পেছানো হোক।

এমনকি বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন পর্যায়ে চিঠি চালাচালি ও বৈঠকের পর হাইকোর্টে রিটও করা হয়। তবে হাইকোর্ট সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে এ রিট খারিজ করে দিয়েছেন। ফলে ৩০ জানুয়ারিই ভোটগ্রহণ হতে চলেছে।

বিএ/পিআর

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - [email protected]